kishoreganjnews.com:কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা

কিশোরগঞ্জে অটোরিক্সা, স্বর্ণালঙ্কার ও ইয়াবাসহ পাঁচ দুর্বৃত্ত আটক



 স্টাফ রিপোর্টার | ২৬ জুন ২০১৮, মঙ্গলবার, ৬:২৫ | অপরাধ 


কিশোরগঞ্জে ইয়াবা বিক্রেতা, ছিনতাইকারী ও চোরসহ পাঁচ দুর্বৃত্তকে পুলিশ আটক করেছে। উদ্ধার করেছে স্বণালঙ্কার, নগদ টাকা ও ৬০ পিস ইয়াবা। জব্দ করা হয়েছে ছিনতাইয়ের কাজে ব্যবহৃত একটি অটোরিক্সা। মঙ্গলবার (২৬ জুন) পাঁচ দুর্বৃত্তকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি আবু শামা মো. ইকবাল হায়াত জানিয়েছেন, সোমবার বিকালে যশোদল কালিকাবাড়ি এলাকা থেকে ইয়াবা বিক্রির সময় ৫২ পিস ইয়াবাসহ পার্শ্ববর্তী কাটাখালি এলাকার ইসহাক মিয়ার ছেলে সোহাগ (২২) এবং ৮ পিস ইয়াবাসহ শহরের বত্রিশ গোপীনাথ আখড়া এলাকার তোতা মিয়ার ছেলে মাসুম (২৬) কে তারা আটক করেন। এ ঘটনায় এসআই নিজাম উদ্দিন বাদী হয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে থানায় মামলা করেছেন।

এছাড়া সোমবার রাতে শহরের নগুয়া বটতলা এলাকার একটি হোটেলে চোরাই স্বর্ণালঙ্কার বিক্রির সময় যশোদল গোয়ালাপাড়ার বন্দে আলীর ছেলে পুরনো একটি চুরি মামলার আসামি বাবুল (২৮) ও শহরের পিটিআই গলির আমীর হোসেনের ছেলে পুরনো পাঁচ মামলার আসামি সমুন (৩০) কে আটক করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে ১৬ হাজার ৫০০ টাকা মূল্যের একটি সোনার চেইন ও দু’টি কানের দুল উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় এসআই তোফায়েল হোসেন বাদী হয়ে সদর থানায় মামলা করেছেন।

অন্যদিকে ২৪ জুন (রোববার) দুপুরে যাত্রীবেশী চার ছিনতাইকারী গাইটাল গোরস্তানের কাছে অটোরিক্সার তিন যাত্রীর কাছ থেকে তিনটি মোবাইল সেটসহ ৬৫ হাজার ৪৫০ টাকার মালামাল ছিনিয়ে নিয়ে যায়। খবর পেয়ে সদর থানার পুলিশ শহরতলির সগড়া বিশ্বরোড থেকে সোমবার রাতে অটোরিক্সা ও নগদ এক হাজার টাকাসহ রশিদাবাদ শালুকপাড়া গ্রামের মোতালেব মিয়ার ছেলে জুয়েল (২০) কে আটক করে। এ ঘটনায় রশিদাবাদ এলাকার হেলাল উদ্দিনের ছেলে অটোযাত্রী নিশাত উদ্দিন (২০) বাদী হয়ে সদর থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা করেছেন।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]


এ বিভাগের আরও খবর



















সেগুনবাগিচা, গৌরাঙ্গবাজার, কিশোরগঞ্জ-২৩০০
মোবাইল:০ ১৮১৯ ৮৯১০৮৮, ০১৮৪১ ৮১৫৫০০
kishoreganjnews247@gmail.com
Web: www. kishoreganjnews.com
প্রধান সম্পাদক: আশরাফুল ইসলাম
সম্পাদক: সিম্মী আহাম্মেদ