কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কিশোরগঞ্জের শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী খায়রুন্নেছাসহ দুইজনের দুই বছরের কারাদণ্ড


 স্টাফ রিপোর্টার | ৭ আগস্ট ২০১৮, মঙ্গলবার, ২:৫৬ | অপরাধ 


কিশোরগঞ্জের শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী মোছা. খায়রুন্নেছা (৫৬) সহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে দুই বছর করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং দশ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরো দুই মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। কিশোরগঞ্জ কালেক্টরেটের সিনিয়র নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবু তাহের সাঈদ সোমবার (৬ আগস্ট) রাতে এই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। দণ্ডিত অপর মাদক ব্যবসায়ীর নাম দেলোয়ার হোসেন (২৫)।

শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী মোছা. খায়রুন্নেছা কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার যশোদল মুসলিমপাড়ার মো. মানিক মিয়ার স্ত্রী। অন্যদিকে দেলোয়ার হোসেন তাড়াইল উপজেলার সাচাইল গ্রামের মৃত দেওয়ান আলী মিয়ার ছেলে।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক সিনিয়র নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবু তাহের সাঈদ জানান, মোছা. খায়রুন্নেছাকে ইতোপূর্বে আরেকবার ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে শাস্তি দেয়া হয়েছিল। তিনি দীর্ঘদিন যাবত মাদক সম্রাজ্ঞী হিসেবে পরিচিত। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কিশোরগঞ্জ জেলার মাদক অপরাধীদের তালিকায় এই খায়রুন্নেছার নাম শীর্ষে রয়েছে।

সিনিয়র নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবু তাহের সাঈদ আরো জানান, সোমবার (৬ আগস্ট) রাতে ৪৮ পিস ইয়াবা এবং দুই কেজি গাঁজাসহ যশোদল মুসলিমপাড়ার বাড়ি থেকে মোছা. খায়রুন্নেছাকে আটক করা হয়। তাকে দুই বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং দশ হাজার টাকা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়। অর্থদণ্ড অনাদায়ে তাকে আরো দুই মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে।

এদিকে রাতেই ৫০পিস ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী দেলোয়ার হোসেনকে আটক করা হয়। তাকেও দুই বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং দশ হাজার টাকা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়। অর্থদণ্ড অনাদায়ে তাকে আরো দুই মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে।

মাদকবিরোধী ভ্রাম্যমাণ আদালতের এই অভিযানে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কিশোরগঞ্জ সার্কেলের সহকারী পরিচালক, পরিদর্শকসহ অন্যান্য কর্মকর্তাগণ এবং জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ কমিটির সভাপতি আলম সারোয়ার টিটো অংশ নেন।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর