kishoreganjnews.com:কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা

কিশোরগঞ্জে দুই মাদক অপরাধীর কারাদণ্ড



 স্টাফ রিপোর্টার | ১৩ আগস্ট ২০১৮, সোমবার, ৯:৫২ | অপরাধ 


কিশোরগঞ্জে মো. আদিউজ্জামান তুহিন (৩০) ও মো. আনোয়ার হোসেন (২৯) নামের দুই মাদক অপরাধীকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়ে কারাগারে পাঠিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। সোমবার (১৩ আগস্ট) রাতে কিশোরগঞ্জ কালেক্টরেটের সিনিয়র নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবু তাহের সাঈদ এই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

দণ্ডিত দুই মাদক অপরাধীর মধ্যে মো. আদিউজ্জামান তুহিনকে দুই বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড ও দশ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো দুই মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং মো. আনোয়ার হোসেনকে এক বছর ছয় মাস (দেড় বছর) বিনাশ্রম কারাদণ্ড ও দশ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো দুই মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

তাদের মধ্যে মো. আদিউজ্জামান তুহিন কিশোরগঞ্জ শহরের বত্রিশ এলাকার হাজী মো. আব্দুল গফুরের ছেলে এবং মো. আনোয়ার হোসেন কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার খিলপাড়া গ্রামের মো. দুলাল মিয়ার ছেলে।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক সিনিয়র নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবু তাহের সাঈদ জানান, সোমবার (১৩ আগস্ট) রাত ৮টা থেকে সাড়ে ৮টা সময়ের মধ্যে কিশোরগঞ্জ র‍্যাব-১৪ টীমসহ কিশোরগঞ্জ সদরের বত্রিশ ও খিলপাড়া এলাকায় মাদকবিরোধী ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। মো. আদিউজ্জামান তুহিনকে ৪০পিস ইয়াবাসহ আটক করি। তাকে দুই বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং দশ হাজার টাকা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত করি। অর্থদণ্ড অনাদায়ে তাকে আরো দুই মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে। এই আসামি খুবই স্বচ্ছল পরিবারের মানুষ। কিশোরগঞ্জ শহরে তাদের আপন জুয়েলার্স, গ্রামীণ জুয়েলার্স, মনিকা জুয়েলার্স, অনামিকা জুয়েলার্স এই কয়েকটি জুয়েলার্স ব্যবসা রয়েছে।

অন্যদিকে মো. আনোয়ার হোসেনকে দুই কেজি গাঁজাসহ আটক করি। তাকে এক বছর ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং দশ হাজার টাকা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়। অর্থদণ্ড অনাদায়ে তাকে আরো দুই মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]


এ বিভাগের আরও খবর



















সেগুনবাগিচা, গৌরাঙ্গবাজার, কিশোরগঞ্জ-২৩০০
মোবাইল:০ ১৮১৯ ৮৯১০৮৮, ০১৮৪১ ৮১৫৫০০
kishoreganjnews247@gmail.com
Web: www. kishoreganjnews.com
প্রধান সম্পাদক: আশরাফুল ইসলাম
সম্পাদক: সিম্মী আহাম্মেদ