কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা

হোসেনপুরের শারীরিক প্রতিবন্ধী রোজিনাকে হুইল চেয়ার উপহার দিলেন প্রধানমন্ত্রী


 বিশেষ প্রতিনিধি | ২১ আগস্ট ২০১৮, মঙ্গলবার, ৭:৪৭ | জাতীয় 


শারীরিক প্রতিবন্ধিতার কারণে মা কিংবা বাবার কোলে চড়ে চলাফেরা করতে হয় কিশোরী রোজিনাকে। ভাঙ্গারি ফেরিওয়ালা বাবা খোকন মিয়ার অভাবের সংসারে নুন আনতে পান্তা ফুরোয় অবস্থা।

রোজিনার প্রতিবন্ধী ভাতায় তার সাধ-আহাদ কিছুটা মেটাতে পারলেও চলাফেরার জন্য মেয়েকে একটি হুইল চেয়ার কিনে দেয়ার মতো সামর্থ্য নেই বাবা-মার। সেই আক্ষেপ আর কষ্ট দীর্ঘদিন ধরে পুড়াচ্ছিল বাবা খোকন মিয়া আর মা মালেকা খাতুনকে। বাবা-মায়ের অসহায়ত্ব পীড়া দিতো কিশোরগঞ্জ জেলার হোসেনপুর পৌর এলাকার পূর্ব ধুলজুরী গ্রামের এই প্রতিবন্ধী কিশোরীকেও।

একটি হুইল চেয়ারের জন্য শারীরিক প্রতিবন্ধী রোজিনার এই আকুতির খবর মঙ্গলবার (২১ আগস্ট) ছাপা হয় দৈনিক মানবজমিন-এ। ভেতরের পাতায় রোজিনার ছবিসহ খুব ছোট্ট আকারে এই সংবাদটি ছাপা হলেও তা নজর এড়ায়নি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। রোজিনার হুইল চেয়ারে চলাফেরা করার স্বপ্নপূরণে তার পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন মানবিক এই প্রধানমন্ত্রী। মঙ্গলবারই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শারীরিক প্রতিবন্ধী রোজিনার জন্য উপহার হিসেবে পাঠিয়েছেন একটি সুদৃশ্য ও উন্নতমানের হুইল চেয়ার।

বিকালে সেই হুইল চেয়ার নিয়ে জেলা প্রশাসক মো. সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী, পুলিশ সুপার মো. মাশরুকুর রহমান খালেদ, বিপিএম, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট কামরুল আহসান শাহজাহান, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এম এ আফজল, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক বিসিবি পরিচালক অ্যাডভোকেট সৈয়দ আশফাকুল ইসলাম টিটু, জেলা সমাজসেবা বিভাগের উপ-পরিচালক মো. কামরুজ্জামান খান, জেলা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক এনায়েত করিম অমি, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক সামছুল ইসলাম খান মাসুম, হোসেনপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দায়িত্বে থাকা কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আব্দুল্লাহ আল মাসউদ, হোসেনপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জহিরুল ইসলাম নূরু মিয়া, সাধারণ সম্পাদক শাহ মাহবুবুল হক, হোসেনপুর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আরাফাতুল ইসলাম, পৌর মেয়র আব্দুল কাইয়ুম খোকনসহ প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা ছুটে যান ভাঙ্গারি ফেরিওয়ালা খোকন মিয়ার জীর্ণকুটিরে।

বাড়ির একচিলতে উঠোনে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া হুইল চেয়ারে বসে চোখে-মুখে আনন্দের আভা যেন ঠিকরে পড়ছিলো রোজিনার। বাবা খোকন মিয়া আর মা মালেকা খাতুনের মুখেও স্বস্তির হাসি। প্রধানমন্ত্রীর দেয়া উপহারে পরিবারটিতে বয়ে যায় আনন্দের বন্যা। দরিদ্র পরিবারটিতে ঈদের একদিন আগেই নেমে আসে ঈদের খুশি।

জেলা প্রশাসক মো. সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মানুষের দুঃখ-কষ্টে সমভাবে ব্যথিত হন। দৈনিক মানবজমিন পত্রিকায় সংবাদ দেখে প্রতিবন্ধী ভাতাপ্রাপ্ত রোজিনাকে হুইল চেয়ার উপহার দিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আবারও বড় ধরনের এক মানবিকতার পরিচয় দিয়েছেন।

রোজিনার মা মালেকা খাতুন বলেন, “হাঁডা-চলা করত পারে না রোজিনা। হের লাগি ঘরের এক কোণাত পইড়্যা থাহে। যহন বেশি অসহ্য লাগে, তহন বাইর করনের লাগি ডাহাডাহি করে। অতঅ বড় মাইয়্যাডারে কিতা কোলঅ কইরা লইয়্যা বেরানি যায়! ঈদের দিনঅ এক রহম। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আইজক্যা রোজিনারে একটা হুইল চেয়ার দিছে। আমরারটাই আইজকাই ঈদ লাগতাছে।”



[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর



















সেগুনবাগিচা, গৌরাঙ্গবাজার, কিশোরগঞ্জ-২৩০০
মোবাইল:০ ১৮১৯ ৮৯১০৮৮, ০১৮৪১ ৮১৫৫০০
kishoreganjnews247@gmails.com
সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি: সাইফুল হক মোল্লা দুলু
প্রধান সম্পাদক: আশরাফুল ইসলাম
সম্পাদক: সিম্মী আহাম্মেদ