kishoreganjnews.com:কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা

ভৈরবে ১০ টাকা কেজির ৯৬ বস্তা চাল গায়েব, ১৬০ বস্তা চালসহ আটক দুই



 স্টাফ রিপোর্টার | ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার, ৩:৩৪ | ভৈরব 


ভৈরবে ১০ টাকা কেজির ৯৬ বস্তা চাল গায়েব ও ১৬০ বস্তা চাল অবৈধভাবে মজুদ করার অভিযোগে ডিলার ও তার সহযোগীকে আটক করেছেন র‌্যাব-১৪, সিপিসি-৩ ভৈরব ক্যাম্পের সদস্যরা। গোপন সংবাদ পেয়ে বুধবার (১২ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে র‌্যাব-১৪, ভৈরব ক্যাম্পের অধিনায়ক এডিশনাল এসপি রফিউদ্দিন মোহাম্মদ যোবায়েরের নেতৃত্বে শিবপুর ইউনিয়নের শম্ভুপুর এলাকায় র‌্যাব অভিযান চালায়।

অভিযানে খাদ্যবান্ধব ডিলার মিজানুর রহমানের সহযোগী কামরুল ইসলামের একটি গোডাউনে অবৈধভাবে রাখা ১৬০ বস্তা চাল উদ্ধার করা হয়। এ সময় ডিলার মিজানুর রহমান (৪৭) ও সহযোগী কামরুল ইসলাম (৬০) কে আটক করে র‌্যাব।

আটককৃত মিজানের বাড়ি ছনছাড়া গ্রামে এবং সহযোগী কামরুলের বাড়ি ভৈরব পৌর শহরের লক্ষ্মীপুর গ্রামে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গরীবদের মাঝে ১০ টাকা কেজি দরে বিক্রয়ের জন্য প্রতি ইউনিয়নে দুই জন করে খাদ্যবান্ধব ডিলার নিয়োগ দেয়া হয়। উপজেলার শিবপুর ইউনিয়নে দুই জনের মধ্যে মিজানুর রহমান নামে একজন ডিলার রয়েছে। চলতি মাসের ৯ তারিখ ৩৭৬ বস্তা চাল ভৈরব খাদ্য গোডাউন থেকে উত্তোলন করার জন্য ওই ডিলারকে অনুমতি পত্র দেয় ভৈরব উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রণ অফিসার মো. শরীফ মোল্লা।

কিন্তু বরাদ্দকৃত ৩৭৬ বস্তা চালের মধ্যে ডিলার মিজানুর রহমান ১২০ বস্তা চাল উত্তোলন করে ছনছাড়ায় একটি গোডাউনে বিতরণের জন্য রাখেন এবং ওই ডিলারের সহযোগী কামরুল ইসলামের নামে খাদ্য গোডাউন থেকে ১৬০ বস্তা চাল উত্তোলন করে কালোবাজারে বিক্রির উদ্দেশ্যে গোপনে অন্য একটি গোডাউনে মজুদ রাখে। এরমধ্যে বাকি ৯৬ বস্তা চালের কোন হদিস পাওয়া যায়নি।

ভৈরব খাদ্য নিয়ন্ত্রক অফিস ও খাদ্য গোডাউনের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সহযোগিতায় দীর্ঘদিন ধরে একটি শক্তিশালী সিন্ডিকেট কালোবাজারে চাল ও ধান বিক্রি করার অভিযোগ রয়েছে।

র‌্যাবের হাতে আটক শিবপুর ইউনিয়নের অভিযুক্ত ডিলার মিজানুর রহমান বলেন, কামরুল ইসলাম সাব ডিলার হিসেবে কাজ করছে। বরাদ্দকৃত ৩৭৬ বস্তা চালের মধ্যে তার গোডাউনে ১২০ বস্তা ও কামরুলের অপর একটি গোডাউনে ১৬০ বস্তা চাল রাখা হয়। তবে ৭৬ বস্তা চাল কোথায় আছে জবাব দিতে পারেননি তিনি।

আটককৃত অপর অভিযুক্ত কামরুল ইসলাম বলেন, তিনি কোন ডিলার না। মিজান তার বন্ধু হওয়ায় তার গোডাউনে চাল মজুদ রাখা হয়। তিনি জানান শিবপুর ইউপি চেয়ারম্যান মো. শফিকুল ইসলাম উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) স্যারের সাথে কথা বলেই চালগুলো এ গোডাউনে রাখেন। ইউএনও সাহেবের লিখিত অনুমতি নিয়েছেন কিনা জানতে চাইলে মৌখিক অনুমতি দিয়েছেন বলে জানান।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]


এ বিভাগের আরও খবর



















সেগুনবাগিচা, গৌরাঙ্গবাজার, কিশোরগঞ্জ-২৩০০
মোবাইল:০ ১৮১৯ ৮৯১০৮৮, ০১৮৪১ ৮১৫৫০০
kishoreganjnews247@gmail.com
Web: www. kishoreganjnews.com
প্রধান সম্পাদক: আশরাফুল ইসলাম
সম্পাদক: সিম্মী আহাম্মেদ