কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


নিকলীতে বখাটে ছাত্রদের হামলায় আহত হয়ে দুই শিক্ষক হাসপাতালে


 খাইরুল মোমেন স্বপন, স্টাফ রিপোর্টার, নিকলী | ৭ নভেম্বর ২০১৮, বুধবার, ৮:৪৭ | নিকলী  


নিকলীতে বখাটে ছাত্ররা হামলা চালিয়ে হাবিবুর রহমান হাবিব (৩২) ও মো. নোমান ( ২৭) নামে একটি উচ্চ বিদ্যালয়ের দুই শিক্ষককে পিটিয়ে ও ছুরিকাঘাতে আহত করেছে। আহত দুই শিক্ষককে কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত দুই শিক্ষকই উপজেলার কারপাশা ইউনিয়নের মজলিশপুর শহীদ স্মৃতি উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, মজলিশপুর শহীদ স্মৃতি উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক (কৃষি) মো. হাবিবুর রহমান হাবিব মঙ্গলবার (৬ নভেম্বর) সন্ধ্যার কিছু আগে নোমানের বাড়ি কারপাশায় বেড়াতে যান। সেখানে কিছু সময় অতিবাহিত করার পর হাবিবুর রহমান হাবিবের ফেরার পথে নোমান এগিয়ে দিতে যান।

নিকলী-করিমগঞ্জ সড়কের বদরপুর সীমানায় এই দুই শিক্ষক রাস্তার পাশে বিশ্রাম করার সময়ে তাদের সাবেক ও বর্তমান কয়েক ছাত্র রড ও ছুরি নিয়ে তাদের ওপর চড়াও হয়। ছাত্রদের রডের আঘাতে হাবিবুর রহমান হাবিবের পিঠে ফোলা জখম ও হাত ভেঙ্গে যায়। ছুরির আঘাতে নোমানের থুতনিসহ একাধিক জায়গা কেটে যায়।

রাতেই আহত দুই শিক্ষককে নিকলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে রেফার্ড করেন।

আহত দুই শিক্ষক বলেন, এসএসসির টেস্ট পরীক্ষায় কয়েক ছাত্রকে অসদুপায় অবলম্বনে শাস্তি দিয়েছিলাম। এর জেরেই তারা এ ঘটনা ঘটিয়ে থাকতে পারে।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে প্রতিষ্ঠানটির সভাপতি নিকলী উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম ঢাকায় অবস্থান করছেন এবং কি ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে তা প্রধান শিক্ষক বলতে পারবেন বলে জানান।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. হোসেন আলী জানান, বখাটে ছাত্রদের চিহ্নিত ও এ ব্যাপারে আইনী ব্যবস্থার প্রস্তুতি চলছে।



[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর