কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


ম্যাজিস্ট্রেট সাঈদের রুহের মাগফিরাত কামনায় দোয়া


 স্টাফ রিপোর্টার | ১২ নভেম্বর ২০১৮, সোমবার, ৭:৫৪ | কিশোরগঞ্জ সদর 


কিশোরগঞ্জ কালেক্টরেটের সিনিয়র নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবু তাহের মো. সাঈদের আত্মার মাগফিরাত কামনায় জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে দোয়া মাহফিল করা হয়েছে। সোমবার (১২ নভেম্বর) বাদ আসর কালেক্টরেট জামে মসজিদে এই দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

দোয়া মাহফিলে জেলা প্রশাসক মো. সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট জিল্লুর রহমান, পুলিশ সুপার মাশরুকুর রহমান খালেদ বিপিএম, স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক জহিরুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) তরফদার মো. আক্তার জামীল, সিভিল সার্জন ডা. মো. হাবিবুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মো. আব্দুল্লাহ আল মাসউদ, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার মো. আসাদ উল্লাহসহ বিভিন্ন স্তরের সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারী ও অন্যান্য মুসল্লিগণ অংশ নেন।

মিলাদের আগে জেলা প্রশাসক তাঁর সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বলেন, আবু তাহের সাঈদ ছিলেন জেলা প্রশাসনের একজন নক্ষত্র। তিনি তাঁর নীতিতে ছিলেন সবসময় অটল। আমরা বড় বড় অভিযানের জন্য তাঁকে পাঠাতাম। তিনি তার কর্তব্য পালনে কোনরকম নমনীয়তা প্রদর্শন করতেন না। তিনি দেশের জন্য জনগণের জন্য কাজ করে গেছেন। তিনি অত্যন্ত মেধাবী ছিলেন। পদোন্নতির জন্য পরীক্ষা দিলে সহজেই তিনি উত্তীর্ণ হতে পারতেন। কিন্তু তিনি এসব বিষয়ে নির্লোভ ছিলেন। কখনো পদোন্নতির জন্য চেষ্টাও করেননি। তার মৃত্যু সত্যিই অপূরণীয় ক্ষতি।

জেলা প্রশাসক তাঁর জন্য সকলের কাছে দোয়া চান এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতিও সমবেদনা জানান।

মিলাদ ও দোয়া পরিচালনা করেন কালেক্টরেট জামে মসজিদের খতিব মাওলানা হেলাল উদ্দিন।

গত শুক্রবার (৯ নভেম্বর) বিকালে কিশোরগঞ্জের অফিসার্স ডরমেটরিতে সিনিয়র নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবু তাহের মো. সাঈদ মারা যান। তাঁকে নরসিংদীর পলাশ উপজেলার মাঝেরচর গ্রামের পারিবারিক গোরস্তানে শনিবার (১০ নভেম্বর) দাফন করা হয়েছে।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর