কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কিশোরগঞ্জ-৫ আসনে নৌকা চান ১৫ নেতা


 বিশেষ প্রতিনিধি | ১৩ নভেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার, ৯:০৭ | নির্বাচনী হালফিল 


কিশোরগঞ্জ জেলার বাজিতপুর ও নিকলী এই দুই উপজেলা নিয়ে কিশোরগঞ্জ-৫ সংসদীয় নির্বাচনী এলাকা। বাজিতপুর উপজেলার ১১টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভা এবং নিকলী উপজেলার ৭টি ইউনিয়ন নিয়ে এই আসনটি গঠিত। এ আসনে ভোটার সংখ্যা ২ লাখ ৭৮ হাজার ৬১৩ জন।

হাওর-সমতলের এ আসনটি ঐতিহ্যগত ভাবে আওয়ামী বিরোধী দুর্গ হিসেবে পরিচিত। ১৯৭৩ সালের ৭ই মার্চ অনুষ্ঠিত প্রথম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনজুর আহমদ বাচ্চু এই আসন থেকে বিজয়ী হলেও দীর্ঘদিন এই আসনটি হাতছাড়া থাকে আওয়ামী লীগের।

দীর্ঘ ৩৫ বছর পর ২০০৮ সালের ২৯শে ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আলহাজ্ব মো. আফজাল হোসেনের হাত ধরে দ্বিতীয়বারের মতো আওয়ামী লীগ এ আসনটি লাভ করে।

পরবর্তিতে ২০১৪ সালের ৫ই জানুয়ারি অনুষ্ঠিত নির্বাচনে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় আলহাজ্ব মো. আফজাল হোসেন দ্বিতীয় বারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। এবারের নির্বাচনেও আলহাজ্ব মো. আফজাল হোসেন আওয়ামী লীগের মনোনয়নে লড়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

বতর্মান সংসদ সদস্য হিসেবে এবারের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার অন্যতম দাবিদার আলহাজ্ব মো. আফজাল হোসেন। তবে এমপি আফজাল হোসেন ছাড়াও এই আসনে অন্তত ১৪ নেতা আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেতে দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ ও জমা দিয়েছেন বলে জানা গেছে।

বিভিন্ন সূত্র থেকে পাওয়া খবর অনুযায়ী, আলহাজ্ব মো. আফজাল হোসেন এমপিসহ মোট ১৫জন আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ ও জমা দিয়েছেন। কিশোরগঞ্জ নিউজ এর পক্ষ থেকে বিভিন্ন মাধ্যমে এই সংখ্যাটির ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়া গেছে। তবে এই সংখ্যায় হেরফের হতেও পারে। সেক্ষেত্রে কারো নাম বাদ পড়লে আমরা আগেই আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি এবং সংশোধনের ব্যাপারে আমরা শতভাগ সচেষ্ট থাকব। এছাড়া কারো নাম অতিরিক্ত সংযোজিত হলে আমাদের নজরে আসার পর পরই তাও সংশোধন করা হবে।

এমপি আফজাল হোসেন ছাড়া আওয়ামী লীগের বাকি ১৪ মনোনয়ন প্রত্যাশী হলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি, সাবেক অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, বাজিতপুর উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান ও এ আসনে আওয়ামী লীগের দুইবারের মনোনয়নপ্রাপ্ত প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা মো. আলাউল হক, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও বাজিতপুর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট শেখ নূরুন্নবী বাদল, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক অজয় কর খোকন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক উপকমিটির সদস্য শহীদুল্লাহ মুহাম্মদ শাহ্ নূর, কেন্দ্রীয় যুবলীগের যুগ্মআহ্বায়ক সুব্রত পাল, নিকলী উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ইসহাক ভূঁইয়া, সাধারণ সম্পাদক ও নিকলী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কারার সাইফুল ইসলাম, জেলা কৃষকলীগ সহ-সভাপতি ফারুক আহম্মেদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কার্যকরি কমিটির সাবেক সদস্য ব্যারিস্টার মো. রফিকুল ইসলাম মিল্টন, নিকলী উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইসচেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম, বাজিতপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুর রহমান বোরহান, বাজিতপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্মআহ্বায়ক মো. শাহজাহান মিয়া, যুগ্মআহ্বায়ক মোবারক হোসেন মাষ্টার এবং জার্মান আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ারুল ইসলাম রতন।

এ রকম পরিস্থিতিতে এবারের নির্বাচনে কে হবেন নৌকার মাঝি? সেটিই এই মুহূর্তে মাঠে-ঘাটে মানুষের আলোচনার মূল বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ডের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, বুধবার (১৪ নভেম্বর) বেলা ১১টা থেকে মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাতকার নেয়া শুরু হবে। সাক্ষাতকার শেষে দলীয় মনোনয়ন চূড়ান্ত করা হবে।



[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর



















সেগুনবাগিচা, গৌরাঙ্গবাজার, কিশোরগঞ্জ-২৩০০
মোবাইল:০ ১৮১৯ ৮৯১০৮৮, ০১৮৪১ ৮১৫৫০০
kishoreganjnews247@gmail .com
সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি: সাইফুল হক মোল্লা দুলু
প্রধান সম্পাদক: আশরাফুল ইসলাম
সম্পাদক: সিম্মী আহাম্মেদ