কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কিশোরগঞ্জে চার দিনব্যাপী আয়কর মেলার উদ্বোধন, সাতজনকে সম্মাননা


 স্টাফ রিপোর্টার | ১৪ নভেম্বর ২০১৮, বুধবার, ৬:২২ | অর্থ-বাণিজ্য 


‘উন্নয়ন ও উত্তরণ, আয়করের অর্জন’ এ স্লোগানকে সামনে রেখে কিশোরগঞ্জে চার দিনব্যাপী আয়কর মেলা শুরু হয়েছে। বুধবার (১৪ নভেম্বর) সকালে শহরের গাইটাল এলাকার উপ-কর কমিশনারের কার্যালয় প্রাঙ্গণে ফিতা কেটে মেলার উদ্বোধন করেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মো. জিল্লুর রহমান।

এ সময় সহকারী কর কমিশনার মেহেদী হাসান খন্দকার, কাস্টমস এক্সসাইজ ও ভ্যাটের সহকারী পরিচালক আব্দুল হান্নান, অতিরিক্ত সহকারী কর কমিশনার সাদেক হোসেন খোকা প্রমুখ ছাড়াও জেলার কর আইনজীবী ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

এ বছর কিশোরগঞ্জে একজন নারী করদাতাসহ মোট সাতজনকে আয়কর বিভাগ সম্মাননা প্রদান করেছে। তারা হলেন, মো. মুশফিকুর রহমান কাঞ্চন, মো. আসাদুজ্জামান ভূঞা, শেখ এহতেশামুল হক, মো. মজিবুর রহমান খান, আব্দুর রউফ, ডা. তাসলীম আরা নীলা এবং মো. মনিরুল হক আকিব।

তাঁদের মধ্যে ২০১৭-২০১৮ করবর্ষে সর্বোচ্চ কর প্রদানকারীগণ হচ্ছেন, মো. মুশফিকুর রহমান কাঞ্চন, মো. আসাদুজ্জামান ভূঞা ও শেখ এহতেশামুল হক। দীর্ঘসময় কর প্রদানকারীগণ হলেন, মো. মজিবুর রহমান খান ও আব্দুর রউফ। সর্বোচ্চ মহিলা করদাতা হচ্ছেন ডা. তাসলীম আরা নীলা এবং ৪০ বছর বয়সের নীচে তরুণ পুরুষ সর্বোচ্চ কর প্রদানকারী হচ্ছেন, মো. মনিরুল হক আকিব।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ২০১৮-১৯ করবর্ষে কিশোরগঞ্জ আয়কর বিভাগের কর আদায়ের লক্ষ্যমাত্র নির্ধারণ করা হয়েছে ১১৫ কোটি টাকা।

১৪-১৭ নভেম্বর প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত আয়কর মেলায় করদাতাগণ রিটার্ন পূরণের বিষয়ে পরামর্শ থেকে শুরু করে কর প্রদান সম্পর্কিত নানা ধরনের সহযোগিতা পাবেন।

উদ্বোধনের প্রথম দিনই মেলা প্রাঙ্গণে করদাতাদের ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। মেলা প্রাঙ্গণে পে-অর্ডার ও চালান জমার সুবিধার্থে বিভিন্ন ব্যাংকের ভ্রাম্যমাণ বুথ চালু রাখাসহ এ বছর সেবার পরিধি বাড়ানো হয়েছে। মেলায় নতুন করে নিবন্ধিত হয়ে কর সনাক্তকরণ নম্বর (ই-টিআইএন) সেবা নিতে পারবেন।

আয়কর হচ্ছে ব্যক্তি বা সত্ত্বার আয় বা লভ্যাংশরে উপর প্রদেয় কর। আয়কর অধ্যাদেশ ১৯৮৪ এর আওতায় কর বলতে অধ্যাদেশ অনুযায়ী প্রদেয় আয়কর, অতিরিক্ত কর, বাড়তি লাভের কর, এতদসংক্রান্ত জরিমানা, সুদ বা আদায় যোগ্য অর্থকে বুঝায়। অন্যভাবে বলা যায়, কর হচ্ছে রাষ্ট্রের সকল জনসাধারণের স্বার্থে রাষ্ট্রের ব্যয় নির্বাহের জন্য সরকারকে প্রদত্ত বাধ্যতামূলক অর্থ।



[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর



















সেগুনবাগিচা, গৌরাঙ্গবাজার, কিশোরগঞ্জ-২৩০০
মোবাইল:০ ১৮১৯ ৮৯১০৮৮, ০১৮৪১ ৮১৫৫০০
kishoreganjnews247@gmail .com
সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি: সাইফুল হক মোল্লা দুলু
প্রধান সম্পাদক: আশরাফুল ইসলাম
সম্পাদক: সিম্মী আহাম্মেদ