কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কিশোরগঞ্জের ছয় আসনে ২১ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল, বৈধ প্রার্থী ৩৪


 বিশেষ প্রতিনিধি | ২ ডিসেম্বর ২০১৮, রবিবার, ৫:৫৭ | নির্বাচনী হালফিল 


একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মনোননয়নপত্র বাছাইয়ে কিশোরগঞ্জ জেলার ৬টি আসনের মোট ৫৫জন প্রার্থীর মধ্যে মোট ২১ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষিত হয়েছে। মোট ৩৪ জন বৈধ প্রার্থী হিসেবে ঘোষিত হয়েছেন।

রোববার (২ ডিসেম্বর) জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে মনোনয়নপত্র বাছাই কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়। রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক মো. সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী মনোনয়নপত্র বাছাই করে ঘোষণা প্রদান করেন।

কিশোরগঞ্জ-১ (কিশোরগঞ্জ সদর-হোসেনপুর) আসনে বিএনপি মনোনীত দুই প্রার্থী অ্যাডভোকেট শরীফুল ইসলাম শরীফ ও খালেদ সাইফুল্লাহ সোহেল খানসহ মোট পাঁচ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেছেন রিটার্নিং অফিসার।

কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদ থেকে পদত্যাগ না করে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ায় অ্যাডভোকেট শরীফুল ইসলাম শরীফের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। এছাড়া দণ্ডপ্রাপ্ত হওয়ায় খালেদ সাইফুল্লাহ সোহেল খান এর মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। তবে এ আসনে বিএনপির অপর প্রার্থী রেজাউল করিম খান চুন্নু এর মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।

মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়া অন্যরা হলেন, জাতীয় পার্টির প্রার্থী মো. মোস্তাইন বিল্লাহ, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি) প্রার্থী মুহ. আবদুর রহমান এবং বিকল্পধারা বাংলাদেশ প্রার্থী মোহাম্মদ ইউসুফ।

এই আসনের বৈধ ঘোষিত ৮ প্রার্থী হলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ প্রার্থী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম এমপি ও মো. মশিউর রহমান হুমায়ুন, বিএনপি প্রার্থী মো. রেজাউল করিম খান চুন্নু, গণতন্ত্রী পার্টি প্রার্থী অ্যাডভোকেট ভূপেন্দ্র ভৌমিক দোলন, কৃষক-শ্রমিক জনতা লীগ প্রার্থী মো. আমিনুল ইসলাম তারেক, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি প্রার্থী মো. এনামুল হক, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ প্রার্থী মো. মহিউদ্দিন এবং জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ প্রার্থী মুহাম্মদুল্লাহ জামী।

কিশোরগঞ্জ-২ (কটিয়াদী-পাকুন্দিয়া) আসনে খেলাপি ঋণের জামিনদার হওয়ায় বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মেজর (অব.) মো. আখতারুজ্জামান রঞ্জন এর মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেন রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক মো. সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী। বাছাইয়ে এই আসনের মোট ১০ প্রার্থীর মধ্যে মেজর (অব.) মো. আখতারুজ্জামান রঞ্জনসহ এই আসনের মোট সাত প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেন রিটার্নিং অফিসার।

মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়া অন্যরা হলেন, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির প্রার্থী নূরুল ইসলাম, জাতীয় পার্টির প্রার্থী এরশাদ হোসাইন, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি) প্রার্থৗ মো. লুৎফুর রহমান, বাংলাদেশ মুসলিম লীগ (বিএমএল) প্রার্থী মীর আবু তৈয়ব মো. রেজাউল করিম, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ প্রার্থী মো. সালাউদ্দিন রুবেল এবং স্বতন্ত্র মো. আনিসুজ্জামান খোকন।

মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষিত তিন প্রার্থী হলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী সাবেক আইজিপি, রাষ্ট্রদূত ও সচিব নূর মোহাম্মদ, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) প্রার্থী জেলা বিএনপির যুগ্মসাধারণ সম্পাদক মো. শহীদুজ্জামান কাকন এবং জাকের পার্টি প্রার্থী দলের জাকের পার্টির স্থায়ী কমিটির সদস্য মো. আব্দুল জব্বার।

কিশোরগঞ্জ-৩ (করিমগঞ্জ-তাড়াইল) আসনের মোট ১১ জন মনোনয়ন পত্র জমাদানকারীর মধ্যে পাঁচ জনের মনোনয়নপত্র বাতিল এবং ছয় জনের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়া প্রার্থীরা হলেন, বিএনপি প্রার্থী সাইফুল ইসলাম সুমন, সিপিবি প্রার্থী ডা. এনামুল হক ইদ্রিছ এবং তিন স্বতন্ত্র ড. মিজানুল হক, মো. মনিরুজ্জামান নয়ন ও অধ্যক্ষ মো. আম্মান খান।

এ আসনে মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষিত প্রার্থীরা হলেন, জাতীয় পার্টির প্রার্থী শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মো. মুজিবুল হক চুন্নু এমপি, বিএনপি প্রার্থী জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট জালাল মোহাম্মদ গাউস, গণতন্ত্রী পার্টির প্রার্থী দিলোয়ার হোসাইন ভূঁইয়া, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) প্রার্থী মো. শওকত আলী, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি) প্রার্থী মুহাম্মদ সাইফুল ইসলাম এবং ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ প্রার্থী মো. আলমগীর হোসাইন।

কিশোরগঞ্জ-৪ (ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম) আসনের মোট ৫ প্রার্থীর মধ্যে বিএনপি প্রার্থী সুরঞ্জন ঘোষের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে।

এই আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক এমপি, বিএনপি প্রার্থী বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট মো. ফজলুর রহমান, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ প্রার্থী মোহাম্মদ আহসানুল্লাহ এবং বাংলাদেশ খেলাফত মজলিশ প্রার্থী খায়রুল ইসলাম ঠাকুরের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষিত হয়েছে।

কিশোরগঞ্জ-৫ (বাজিতপুর-নিকলী) আসনের মোট ১০ প্রার্থীর মধ্যে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) প্রার্থী সেলিনা সুলতানার মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে।

এই আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী মো. আফজাল হোসেন এমপি, বিএনপি প্রার্থী শেখ মজিবুর রহমান ইকবাল ও মাহমুদুর রহমান উজ্জল, বাংলাদেশ মুসলিম লীগ প্রার্থী এ.এইচ.এম কামরুজ্জামান খান, গণতন্ত্রী পার্টি প্রার্থী গাজী এনায়েতুর রহমান, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি প্রার্থী মো. ফরিদ আহাম্মদ, বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি প্রার্থী খন্দকার মোছলেহ উদ্দিন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ প্রার্থী মো. ইব্রাহীম এবং ন্যাশনাল পিপলস পার্টি প্রার্থী শাহ আলমের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষিত হয়েছে।

কিশোরগঞ্জ-৬ (ভৈরব-কুলিয়ারচর) আসনের ছয় প্রার্থীর মধ্যে দুই প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে। তারা হলেন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মোহাম্মদ মুছা খান ও স্বতন্ত্র মোহাম্মদ আয়ুব হুসেন।

এই আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী নাজমুল হাসান পাপন এমপি, বিএনপি প্রার্থী মো. শরীফুল আলম, জাতীয় পার্টি প্রার্থী নূরুল কাদের সোহেল এবং ইসলামী ফ্রন্ট বাংলাদেশ প্রার্থী মো. রুবেল হোসেনের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষিত হয়েছে।



[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর



















সেগুনবাগিচা, গৌরাঙ্গবাজার, কিশোরগঞ্জ-২৩০০
মোবাইল:০ ১৮১৯ ৮৯১০৮৮, ০১৮৪১ ৮১৫৫০০
kishoreganjnews247@gmail .com
সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি: সাইফুল হক মোল্লা দুলু
প্রধান সম্পাদক: আশরাফুল ইসলাম
সম্পাদক: সিম্মী আহাম্মেদ