কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


যে আক্ষেপ নিয়ে না ফেরার দেশে জহিরুল ইসলাম খোকন


 বিশেষ প্রতিনিধি | ৬ ডিসেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার, ৯:০৫ | পাকুন্দিয়া  


একেবারেই আকস্মিকভাবে মঙ্গলবার (৪ ডিসেম্বর) ভোর রাত সাড়ে ৩টার দিকে মারা যান পাকুন্দিয়া উপজেলার নারান্দী ইউনিয়নের স্বর্ণপদকপ্রাপ্ত সাবেক চেয়ারম্যান জহিরুল ইসলাম খোকন। মাত্র ৫০ বছর বয়সে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান তিনি।

মিতভাষী জহিরুল ইসলাম খোকন ছিলেন একজন ডাকসাইটে ছাত্রনেতা। নির্বাচিত হয়েছিলেন পাকুন্দিয়া কলেজ ছাত্র সংসদের জিএস। ছিলেন পাকুন্দিয়া উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক।

সবকিছু ছাপিয়ে ব্যক্তি জহিরুল ইসলাম খোকন ছিলেন একজন সৎ ও আদর্শবান মানুষ। আন্তরিক ও অমায়িক ব্যবহারের কারণে দল-মত নির্বিশেষে সব শ্রেণিপেশার মানুষের কাছেই তিনি ছিলেন বরণীয়।

এর প্রমাণ মিলে তাঁর নামাজে জানাজায়। ওইদিন বাদ আছর নারান্দী পশ্চিমপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে তাঁর নামাজে জানাজায় ঢল নামে শোকার্ত মানুষের। বিশাল জানাজায় উপস্থিত মানুষ পাথরচাপা কষ্ট বুকে নিয়ে লুকিয়েছেন চোখের জল। শোক ও শ্রদ্ধায় তাঁকে সমাহিত করা হয় পারিবারিক কবরস্থানে।

জহিরুল ইসলাম খোকন একজন রাজনীতিবিদ হিসেবেও ছিলেন অনন্য। নিজ দল ছাড়াও অন্যান্য রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীদের সাথেও ছিল তাঁর সৌহার্দপূর্ণ সম্পর্ক।

স্বভাবতই একজন রাজনৈতিক নেতা হিসেবে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে তিনি সক্রিয় হয়ে ওঠেছিলেন। পছন্দের মানুষকে এ আসনে দলীয় প্রার্থী হিসেবে পেয়ে হয়েছিলেন উচ্ছ্বসিতও।

এ আসনের বিএনপি প্রার্থী মেজর (অব.) আখতারুজ্জামান রঞ্জনও দলের প্রতি নিবেদিত মানুষ হিসেবে জানতেন জহিরুল ইসলাম খোকনকে। যে কারণে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার জন্য যে কয়জন নেতাকে তিনি বেছে নিয়েছিলেন, তাঁর একজন ছিলেন জহিরুল ইসলাম খোকন।

মৃত্যুর মাত্র চার দিন আগে ২৮ নভেম্বর জহিরুল ইসলাম খোকন বিএনপি প্রার্থী মেজর (অব.) আখতারুজ্জামান রঞ্জনের সাথে কিশোরগঞ্জ শহরে যান মনোনয়নপত্র জমা দিতে। মনোনয়নপত্রের ত্রুটি-বিচ্যুতিসহ সব দিকে নজর ছিল জহিরুল ইসলাম খোকনের। বিএনপি প্রার্থী মেজর (অব.) আখতারুজ্জামান রঞ্জনের সাথে থেকে মনোনয়নপত্র জমাও দেন রিটার্নিং অফিসারের কাছে।

সেসময়ই এই প্রতিবেদকের সাথে কথা হয় জহিরুল ইসলাম খোকনের। জানিয়েছিলেন, নির্বাচন নিয়ে তাঁর ভাবনার কথা। দলীয় প্রার্থীকে ঘিরে স্বপ্নের কথা।

এর মাত্র দু’দিন পর ২ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র বাছাইয়ে বাতিল হয়ে যায় বিএনপি প্রার্থী মেজর (অব.) আখতারুজ্জামান রঞ্জনের মনোনয়নপত্র। বিষয়টি আশাহত করে জহিরুল ইসলাম খোকনকে। স্বপ্নভঙ্গের বেদনায় মুষড়ে পড়েন তিনি। এ নিয়ে আক্ষেপের শেষ ছিল না তাঁর।

এর একদিন পরেই আসে সেই চরম দুঃসংবাদ। মঙ্গলবার (৪ ডিসেম্বর) ভোর রাতেই সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকে চাউর হয় তাঁর মৃত্যুর খবরটি। ফেসবুকের ওয়ালে ওয়ালে ছড়িয়ে পড়ে নিথর জহিরুল ইসলাম খোকনের ছবি আর শোকগাঁথা। সমব্যথী মানুষের সেই শোকে আজও জীবন্ত এক প্রিয় নাম- জহিরুল ইসলাম খোকন।

জহিরুল ইসলাম খোকন নেই দু’দিন হলো। এর মাঝেই বৃহস্পতিবার (৬ ডিসেম্বর) সকালে আপিলে প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন মেজর (অব.) আখতারুজ্জামান রঞ্জন। কিন্তু সেই খবর শুনে যাওয়ার আগেই জহিরুল ইসলাম খোকন চলে গেছেন না ফেরার দেশে।



[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর













সেগুনবাগিচা, গৌরাঙ্গবাজার, কিশোরগঞ্জ-২৩০০
মোবাইল:০ ১৮১৯ ৮৯১০৮৮, ০১৮৪১ ৮১৫৫০০
kishoreganjnews247@gmail .com
সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি: সাইফুল হক মোল্লা দুলু
প্রধান সম্পাদক: আশরাফুল ইসলাম
সম্পাদক: সিম্মী আহাম্মেদ