কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


বাজিতপুরে বন্দুকযুদ্ধে ডাকাত নিহত, শুটার গান, গুলি, ইয়াবা ও ফেন্সিডিল উদ্ধার


 স্টাফ রিপোর্টার | ১১ জানুয়ারি ২০১৯, শুক্রবার, ৩:১০ | বাজিতপুর 


বাজিতপুরে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধের পর ডাকাতদলের নিজেদের গুলিতে আশরাফ উদ্দিন (৩০) নামে আন্ত:জেলা ডাকাতদলের সক্রিয় এক সদস্য নিহত হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। বৃহস্পতিবার (১০ জানুয়ারি) দিবাগত রাত দেড়টার দিকে বাজিতপুর উপজেলার পিরিজপুর ইউনিয়নের বিলপাড় গজারিয়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

নিহত আশরাফ উদ্দিন ভৈরব উপজেলার সাদেকপুর ইউনিয়নের মানিকদী দক্ষিণপাড়া এলাকার বাচ্চু মিয়ার ছেলে।

‘অবৈধ অস্ত্রধারী আন্ত:জেলা ডাকাতদল ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে’ এমন খবর পেয়ে পুলিশ বাজিতপুর উপজেলার পিরিজপুর ইউনিয়নের বিলপাড় গজারিয়া এলাকায় যায়। রাত দেড়টার দিকে সেখানে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ৬-৭ জনের ডাকাতদলটি পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এ সময় আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছোঁড়ে।

গুলির শব্দে স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থলের দিকে আসা শুরু করলে পুলিশ লোকজনের নিরাপত্তার কথা ভেবে গুলি ছোঁড়া বন্ধ করে দেয়। ডাকাতদলের সদস্যরা এলোপাথারি গুলিবর্ষণ করতে করতে ঘটনাস্থল ছেড়ে পালিয়ে যায়।

পরে পুলিশ ডাকাতদলটির অবস্থান নেয়া জায়গায় গিয়ে অচেতন অবস্থায় আশরাফ উদ্দিনকে পড়ে থাকতে দেখে। এ সময় আশরাফ উদ্দিনের পাশে পড়ে থাকা ১টি শুটারগান, ৫ রাউন্ড কার্তুজ, ২ টি রামদা, ১০০ পিস ইয়াবা ও ১৫ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করে পুলিশ। আশরাফ উদ্দিনকে বাজিতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পুলিশের সঙ্গে ডাকাতদলের বন্দুকযুদ্ধে এসআই মো. আমিনুল ইসলাম, এএসআই গোলাম রসুল এবং দুই কনস্টেবল বায়েজিদ ও কোরবান আলী গুরুতর আহত হন।

বাজিতপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) এস.এম শফিকুল ইসলাম জানান, ডাকাতদলের নিজেদের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধে আশরাফ উদ্দিনের মৃত্যু হয়েছে। নিহত আশরাফ উদ্দিন আন্ত:জেলা ডাকাতদলের সক্রিয় সদস্য। তার নামে ভৈরব থানা ও নরসিংদী জেলার বিভিন্ন থানায় একাধিক ডাকাতির মামলা রয়েছে।



[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর