কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


সংরক্ষিত আসনে যুবনেত্রী এডভোকেট তৌহিদা নাজনীন মনোনয়ন প্রত্যাশী


 স্টাফ রিপোর্টার | ২৪ জানুয়ারি ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ১:৩২ | নারী 


ছাত্র জীবনে মফঃস্বল শহরের প্রথা ভেঙ্গে ছাত্র রাজনীতির সাথে যুক্ত হয়েছেন। ছিলেন কিশোরগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগ এর প্রথম মহিলা সম্পাদিকা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এর সামসুর নাহার হলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হয়ে ক্যাম্পাস এবং রাজপথে সক্রিয়তা অব্যাহত রেখেছেন। মিছিলে সব সময় সামনে থেকেই নেতৃত্ব দিয়েছেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অনার্স, মাস্টার্স করে আইন পেশায় নিয়োজিত এডভোকেট তৌহিদা নাজনীন বর্তমানে যুব মহিলা লীগের কেন্দ্রীয় সংসদের সহ আইন সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন নিজের যোগ্যতা এবং দক্ষতা বজায় রেখে।

এডভোকেট তৌহিদা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এমফিল করছেন এই মুহূর্তে। ব্যক্তিগত জীবনে এক পুত্র ও এক কন্যা সন্তানের জননী। স্বামী একজন উচ্চ পদস্থ সরকারি কর্মকর্তা।

বাবা মুজিব বাহিনী কিশোরগঞ্জ অঞ্চলে সেকেন্ড ইন কমান্ড প্রয়াত ইদ্রিস আলী ছিলেন নিকলী উপজেলার ভূমিধ্বস বিজয়ী উপজেলা চেয়ারম্যান। নিকলী থানা আওয়ামী লীগ এর প্রতিষ্ঠাতা এবং প্রথম সাধারন সম্পাদক। হাওর অঞ্চলে তিনি “নেতা” নামে সর্বাধিক পরিচিত। মাতা হোসনেয়ারা ইদ্রিস মুক্তা হোসনেয়ারা ইদ্রিস মুক্তা মহিলা আওয়ামী লীগ কিশোরগঞ্জ জেলা শাখায় জন্মলগ্ন থেকেই সহ সভাপতি হিসেবে রাজনৈতিক ময়দানে এখনো এক লড়াকু এক সৈনিকের নাম।

মহান জাতীয় সংসদ এর সংরক্ষিত নারী আসনে স্বজন, বন্ধু এবং রাজনৈতিক সহকর্মীদের চাপে এডভোকেট তৌহিদা নাজনীন মনোনীত পত্র সংগ্রহ করেছেন। তাকে মনোনয়ন দিলে নিশ্চিত ভাবেই বাংলাদেশ পাবে একজন শিক্ষিত, আইনজ্ঞ, বিজ্ঞ এবং নিবেদিত প্রাণ একজন সংসদ সদস্য, এটা তার রাজনৈতিক সমর্থকদের বিশ্বাস।

এডভোকেট তৌহিদা নাজনিন দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর