kishoreganjnews.com:কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা

কটিয়াদীতে জায়গা জবরদখল করে স্থাপনা নির্মাণ



 স্টাফ রিপোর্টার | ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, শুক্রবার, ১:০৬ | কটিয়াদী 


কটিয়াদীতে মো. আনোয়ার হোসেন নামে এক ব্যক্তির ক্রয় করা জায়গা জবরদখল করে সেখানে স্থাপনা নির্মাণ করছে একটি পরিবার। ভূমির মালিক জবরদখলকারী পরিবারটির কাছে জায়গা বিক্রি না করে অন্যজনের কাছে জায়গা বিক্রি করায় পরিবারের সদস্যরা এই জবরদখল চালিয়েছেন। ফলে জায়গা কিনে বিপাকে পড়েছেন উপজেলার বনগ্রাম ইউনিয়নের শিমুহা দিঘীরপাড় গ্রামের মো. আনোয়ার হোসেন। এ পরিস্থিতিতে আনোয়ার হোসেন কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতের দ্বারস্থ হলে বৃহস্পতিবার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আলমগীর হুছাইন কটিয়াদী থানার ওসিকে শান্তি শৃংখলা রক্ষার আদেশ দিয়েছেন।

অভিযোগ ও সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, আনোয়ার হোসেন গত পহেলা ফেব্রুয়ারি শিমুহা দিঘীরপাড় মৌজার রাস্তার পাশে এক শতাংশ জায়গা সাফ কাওলা দলিল করে ক্রয় করেন। এই জায়গাটুকু পূর্বতন মালিকের কাছ থেকে কেনার জন্য এলাকার মৃত আবদুর রশিদের দুই ছেলে আশরাফ আলী ও সুরুজ আলীর পরিবারের পক্ষ থেকে প্রস্তাব দেয়া হয়েছিল। কিন্তু তাদের কাছে জায়গাটুকু বিক্রি না করে জায়গার মালিক মো. আনোয়ার হোসেনের কাছে বিক্রি করে দেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে জায়গা জবরদখলের পরিকল্পনা করে পরিবারটি। এর অংশ হিসেবে আনোয়ার হোসেনের ক্রয় করা জায়গাটুকু দখলে নিয়ে তারা সেখানে পাকা দেয়াল তুলে স্থাপনা নির্মাণ শুরু করেন। আনোয়ার হোসেন জবরদখলের প্রতিবাদ জানালে সালিশে মিমাংসার আশ্বাসে সাময়িকভাবে নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখলেও পরবর্তিতে আবারও জবরদখল করা জায়গায় স্থাপনা নির্মাণ কাজ শুরু করে।

ভুক্তভোগী আনোয়ার হোসেন জানান, তিনি নিজের অসুস্থতা ও সন্তানের লেখাপড়ার জন্য সপরিবারে কিশোরগঞ্জ জেলা শহরে বসবাস করেন। এ সুযোগে জবরদখলকারীরা তার কেনা জায়গায় পাকাঘরসহ অন্যান্য স্থাপনা নির্মাণ করে চলেছে। জবরদখলকারীদের মধ্যে আশরাফ আলীর ছেলে রিপন মিয়া তাকে ভয়ভীতি ও হুমকি পর্যন্ত দিয়েছে।

তবে আনোয়ার হোসেনের অভিযোগ অস্বীকার করে রিপন মিয়া জানান, তাদের আগে বিক্রি করে দেয়া জায়গা তার বাপ-চাচারা পুনরায় কিনেছেন। নিজেদের জায়গাতে তারা ঘর করছেন জানিয়ে রিপন মিয়া বলেন, জোর করে জায়গা দখলের অভিযোগ সত্য নয়। উনি (আনোয়ার হোসেন) যদি কোন জায়গা কিনে থাকেন তাহলে এলাকার গণমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে বসলেই মিটমাট হয়ে যায়। সেক্ষেত্রে আমাদের কোন আপত্তি নেই।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]


এ বিভাগের আরও খবর



















সেগুনবাগিচা, গৌরাঙ্গবাজার, কিশোরগঞ্জ-২৩০০
মোবাইল:০ ১৮১৯ ৮৯১০৮৮
kishoreganjnews247@gmail.com
Web: www. kishoreganjnews.com
প্রধান সম্পাদক: আশরাফুল ইসলাম
সম্পাদক: সিম্মী আহাম্মেদ