কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


বাজিতপুরে বাক প্রতিবন্ধী কিশোরী ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বায় অভিযুক্ত কিশোর গ্রেপ্তার


 স্টাফ রিপোর্টার | ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, শনিবার, ৬:১৬ | অপরাধ 


বাজিতপুরে ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা হওয়া বাক প্রতিবন্ধী কিশোরী ধর্ষণ মামলার অভিযুক্ত অন্তর আলী (১৬) নামে এক কিশোরকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। র‌্যাব-১৪, সিপিসি-৩, ভৈরব ক্যাম্পের কোম্পানী অধিনায়ক অতিরিক্ত পুুলিশ সুপার রফিউদ্দীন মোহাম্মদ যোবায়ের এবং সিনিয়র এডি চন্দন দেবনাথ এর নেতৃত্বে পরিচালিত অভিযানে শনিবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) রাত সাড়ে ১২টায় উপজেলার ঝুমাপুর এলাকা থেকে সে গ্রেপ্তার হয়।

গ্রেপ্তার হওয়া অন্তর আলী এবারের এসএসসি পরীক্ষার্থী। সে বাজিতপুর উপজেলার বালিগাঁও গ্রামের আহম্মেদ আলীর ছেলে।

র‌্যাব-১৪, সিপিসি-৩, ভৈরব ক্যাম্পের কোম্পানী অধিনায়ক অতিরিক্ত পুুলিশ সুপার রফিউদ্দীন মোহাম্মদ যোবায়ের জানান, সরারচর শিবনাথ উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র অন্তর আলী একই স্কুলের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী বাক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে গত বছরের ১৫ই অক্টোবর ফুঁসলিয়ে নিজ কক্ষে নিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে।

পরবর্তিতে ওই কিশোরীর শরীরে অসুস্থতার নানা উপসর্গ দেখা দিলে কিশোরীর বাবা কিশোরীকে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা করান। সে আরোগ্য লাভ না করায় গত ৩রা জানুয়ারি একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে পরীক্ষা-নিরিক্ষা করে কিশোরীর বাবা জানতে পারেন, তার মেয়ে ৯ সপ্তাহের অন্তঃসত্ত্বা।

বাবা-মার জিজ্ঞাসাবাদের বাক প্রতিবন্ধী কিশোরী ইশারায় এবং কাগজে লিখে ধর্ষণের বিষয়টি জানায়। কিশোরীর পরিবার বিষয়টি গ্রামের গণ্যমান্য ব্যক্তিদের জানালে এ ঘটনায় গত ৭ই জানুয়ারি এক গ্রাম্য সালিশ অনুষ্ঠিত হয়। সালিশে অভিযুক্ত অন্তর ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে এবং তিন দিনের মধ্যে বিবাহের আশ্বাস দেয়।

অন্তরের পরিবারের চাপে পরদিন ৮ই জানুয়ারি কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে কিশোরীর ডাক্তারি পরীক্ষা করেও অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার একই ফলাফল পাওয়া যায়। পরীক্ষার ফলাফল জানতে পেরে অভিযুক্ত অন্তর আত্মগোপন করে। এ নিয়ে কিশোরীর পরিবার থেকে গত ১০ই জানুয়ারি আরেক দফা গ্রাম্য সালিশ ডাকা হলেও অভিযুক্ত পক্ষের লোকজন তাতে অনুপস্থিত থাকে।

এ পরিস্থিতিতে ১২ই জানুয়ারি কিশোরীর বাবা বাজিতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে অভিযোগ করেও কোন প্রতিকার না পেয়ে ১৫ই জানুয়ারি আদালতে মামলা করেন। মামলা দায়েরের পর থেকে অভিযুক্ত অন্তরের পরিবারের পক্ষ থেকে কিশোরীর পরিবারকে মামলা উঠিয়ে নেয়ার জন্য বিভিন্ন প্রকার হুমকি দেয়।

আদালতের গ্রেপ্তারি পরোয়ানা সংগ্রহ করে শনিবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) রাত সাড়ে ১২টায় বাজিতপুর উপজেলায় ঝুমাপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত অন্তর আলীকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব-১৪, ভৈরব ক্যাম্প।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর