কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


তাড়াইলে জাপা-বিএনপি’র শতাধিক নেতাকর্মীর আওয়ামী লীগে যোগদান


 আমিনুল ইসলাম বাবুল | ২ মার্চ ২০১৯, শনিবার, ৭:০২ | রাজনীতি 


তাড়াইলে উপজেলা জাতীয় পার্টির সাবেক সভাপতি ও জাওয়ার ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মো. আবদুল হক ভূঞা, উপজেলা জাতীয় পার্টির যুগ্ম আহবায়ক ও তাড়াইল-সাচাইল ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো. আবদুল ওয়াহেদ ভূঞা, উপজেলা ছাত্র সমাজের সাবেক সভাপতি হাজী মো. দেলোয়ার হোসেন ফুল মিঞা’র নেতৃত্বে জাতীয় পার্টি (জাপা) ও বিএনপির শতাধিক নেতাকর্মী বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে আওয়ামী লীগে যোগদান করেছেন।

কিশোরগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট মো. জিল্লুর রহমান এবং তাড়াইল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আগামী ২৪শে মার্চ অনুষ্ঠেয় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মো. আজিজুল হক ভূঞা মোতাহার এর হাতে ফুল দিয়ে তারা আওয়ামী লীগে যোগদান করেন।

শনিবার (২ মার্চ) দুপুরে উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে তাড়াইল উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে আওয়ামী লীগ, অঙ্গ সহযোগি ও ভ্রাতৃত্ববান্ধব সংগঠনের নেতাকর্মীদের এক মতবিনিময় সভায় এই যোগদান পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।

উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ মো. ফখরুল ইসলাম ভূঞা’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার মো. আবদুল হাই, কিশোরগঞ্জ জেলা বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মো. আবুল হাশেম, তাড়াইল প্রেসক্লাব সভাপতি দেওয়ান ফারুক দাদ খান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক  ইকবাল হোসেন তারেক, জাওয়ার ইউপি চেয়ারম্যান মো. জিয়াউর রহমান, দিগদাইড় ইউপি চেয়ারম্যান মো. গোলাপ হোসেন ভূঞা, তালজাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান মো. সেলিম খান, উপজেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি মো. আবদুস ছালাম, বঙ্গবন্ধু পরিষদের  সভাপতি মো. মোস্তফা কামাল, সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম বাবুল, কৃষক লীগের সভাপতি ইসলাম উদ্দিন ফসসাল, সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, যুব লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. শহীদুল ইসলাম, সেচ্ছাসেবক লীগের আহবায়ক সাইফ উদ্দিন কাজল ইদ্রিস প্রমুখসহ বিভিন্ন ইউনিয়ন-ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকগণ উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় আজিজুল হক মোতাহার বলেন, আবদুল হক ভূঞা, আবদুল ওয়াহেদ ভূঞা, দেলোয়ার হোসেন ফুল মিঞাসহ যোগদানকারী সকল নেতাদের পরিবারের সঙ্গে আমাদের দীর্ঘদিনের সম্পর্ক। রাজনৈতিক ক্ষেত্রে আমরা পরস্পরের সহযোগীও ছিলাম। কিন্তু, কোনোরকম বিরূপ সম্পর্ক আমাদের মধ্যে ছিল না। আজকে তাঁদের যোগদানের মাধ্যমে আমাদের মধ্যকার বন্ধুত্বের হাত আরো শক্ত হয়ে গেল। আমরা এখন ভাই-ভাইয়ের কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে তাড়াইলের উন্নতীতে একসঙ্গে কাজ করব।

যোগদান অনুষ্ঠানে অ্যাডভোকেট মো. জিল্লুর রহমান যোগদানকারীদের উদ্দেশে বলেন, আবদুল হক ভূঞা, আবদুল ওয়াহেদ ভূঞা, দেলোয়ার হোসেন ফুল মিঞার নেতৃত্বে আজ তাড়াইলে জাতীয় পার্টি ও বিএনপির শতাধিক নেতাকর্মী আওয়ামী লীগে যোগ দিলেন, তাঁরা আমাদের ভাই। তাঁরা যেন মনে কোনোরকম কষ্ট না পায়, সেটা আমাদের দেখতে হবে।

তিনি আরো বলেন, তাদের সমমর্যাদা দিয়ে রাখতে হবে। কোনো রকম বৈষম্য করা যাবে না। তাঁদের যোগদানে আমাদের শক্তি অনেক বেড়ে গেল। তাঁরা এতদিন বাইরে ছিল, ঘরের ছেলে ঘরে ফিরে এলো, এখন আমাদের সাথে এক হয়ে গেল।

যোগদানকারী নেতাকর্মীরা সকলেই একই মঞ্চে একই সুরে বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে আমরা আজ আওয়ামী লীগে যোগদান করলাম। এ সময় আবদুল হক ভূঞা, আবদুল ওয়াহেদ ভূঞা, দেলোয়ার হোসেন ফুল মিঞাসহ সকলে-ই ‘জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু’ শ্লোগান দিয়ে তাঁদের বক্তব্য শেষ করেন।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর