কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা

যেভাবে ডাকাত আটক করলো কলেজছাত্রী


 স্টাফ রিপোর্টার | ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, বুধবার, ২:৪৮ | কটিয়াদী 


এ এক নাটকীয় দৃশ্য! বাড়িতে হানা দেয়া ডাকাতদলের এক সদস্যকে জাপটে ধরে আটকে রেখেছে এক কলেজছাত্রী। তার হাত থেকে ছাড়া পেতে কলেজছাত্রীর মাথায় ও হাতে সজোরে আঘাত করে আটকা পড়া ডাকাত।

কিন্তু নাছোড়বান্দা কলেজছাত্রীর সেদিকে ভ্রুক্ষেপ নেই। প্রাণ গেলেও ডাকাতটাকে সে ছাড়বে না। ব্যর্থ হয়ে কলেজছাত্রীকে টেনে-হিঁচড়ে নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে ডাকাত। বেশ অনেকটা পথ টেনে-হিঁচড়ে নিয়েও যায়।

কিন্তু কলেজছাত্রীর অদম্য প্রতিরোধে সব প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয় ডাকাতের। খবর পেয়ে এলাকাবাসী গিয়ে আটক ডাকাতকে বেঁধে ফেলে। পরে তাকে তুলে দেয়া হয় পুলিশে।

এমনি এক অবিশ্বাস্য ঘটনা ঘটেছে কটিয়াদী উপজেলার লোহাজুরী ইউনিয়নের উত্তর পূর্বচর পাড়াতলা গ্রামে। গ্রামের শাহিদা আক্তার (১৭) নামের কলেজছাত্রীর সাহসিকতায় আটক হয়েছে তাদের বাড়িতে হানা দেয়া মিলন মিয়া (৪৫) নামে ডাকাত দলের এক সদস্য।

সোমবার ভোর রাতের এই ঘটনার পর কলেজছাত্রী শাহিদা আক্তারকে দেখতে তাদের বাড়িতে ভীড় করছে শত শত উৎসূক মানুষ।

প্রাণপণ লড়ে ডাকাত আটককারী শাহিদা আক্তার পূর্বচর পাড়াতলা গ্রামের সাবেক সেনা সদস্য মো. শহিদুল্লাহর মেয়ে এবং কটিয়াদী ডা. আবদুল মান্নান মহিলা কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী।

অন্যদিকে আটক হওয়া ডাকাত মিলন মিয়া করিমগঞ্জ উপজেলার বাসিন্দা।

এলাকাবাসী জানায়, সোমবার রাত সাড়ে ৩টার দিকে পূর্বচর পাড়াতলা গ্রামের সাবেক সেনাসদস্য শহিদুল্লাহর বাড়িতে একদল ডাকাত হানা দেয়। দেশীয় অস্ত্র দিয়ে ডাকাতদল মো. শহিদুল্লাহর ঘরের দরজা ভেঙে ভেতরে স্বর্ণালংকার ছিনিয়ে নেয়ার সময় শহীদুল্লাহর স্ত্রী জাহানারা চিৎকার দেন। পাশের ঘরে থাকা গৃহকর্তা শহিদুল্লাহ দরজা খুলতেই ডাকাতদলের সদস্যরা অতর্কিত হামলা চালিয়ে তাকে আহত করে।

এ সময় শহীদুল্লাহর এসএসসি পরীক্ষার্থী ছেলে জুনায়েদ হোসেন অপুকে এক ডাকাত মারপিট করতে থাকলে তার বড় বোন শাহিদা আক্তার এক ডাকাতকে জাপটে ধরে। পরিবারের লোকজনের চিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে গেলে শাহিদার হাতে আটকে পড়া ডাকাত মিলন মিয়াকে রেখেই ডাকাত দলের অন্য সদস্যরা পালিয়ে যায়। এ সময় এলাকাবাসী মিলন ডাকাতকে আটক করে গণপিটুনী দেয়।

খবর পেয়ে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়।

অন্যদিকে এ ঘটনায় ডাকাতদলের হাতে আহত মো. শহিদুল্লাহ (৫৫), তার স্ত্রী জাহানারা (৩৮), সাবিনা আক্তার (২৫), শাহিদা আক্তার (১৭) ও এসএসসি পরীক্ষার্থী জুনায়েদ হোসেন অপু (১৬) কে উদ্ধার করে কটিয়াদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন স্বজনরা।



[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর



















সেগুনবাগিচা, গৌরাঙ্গবাজার, কিশোরগঞ্জ-২৩০০
মোবাইল:০ ১৮১৯ ৮৯১০৮৮, ০১৮৪১ ৮১৫৫০০
kishoreganjnews247@gmails.com
সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি: সাইফুল হক মোল্লা দুলু
প্রধান সম্পাদক: আশরাফুল ইসলাম
সম্পাদক: সিম্মী আহাম্মেদ