কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


মিঠামইনে জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহের বর্ণাঢ্য আয়োজন


 স্টাফ রিপোর্টার | ৩০ এপ্রিল ২০১৯, মঙ্গলবার, ১:১৭ | মিঠামইন 


পুষ্টিকর ও সুস্বাদু খাবার তৈরি ও এর গুণাগুণসহ পুষ্টি বিষয়ে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে মিঠামইনে বর্ণাঢ্য আয়োজনে অনুষ্ঠিত হলো পুষ্টি মেলা ও পুষ্টিকর রান্না খাবার প্রতিযোগিতা। মিঠামইন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স আয়োজিত জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহের অনুষ্ঠানে সোমবার (২৯ এপ্রিল) এই পুষ্টি মেলা ও পুষ্টিকর রান্না খাবার প্রতিযোগিতার শ্রেষ্ঠ রাঁধুনী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

এ উপলক্ষে পুষ্টি সমন্বয় কমিটি মেলার স্টল পরিদর্শন করেন এবং সেরা স্টল ও পুষ্টিকর রান্না খাবার প্রতিযোগিতার শ্রেষ্ঠ রাঁধুনী নির্বাচন করেন।

‘খাদ্যের কথা ভাবলে পুষ্টির কথাও ভাবুন’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে অনুষ্ঠিত হওয়া জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ উপলক্ষে আয়োজিত পুষ্টি মেলার স্টলে পুষ্টিকর খাবার, শাক-সবজি ও ফলমূল প্রদর্শণ করে স্বাস্থ্য ও পুষ্টি সম্পর্কে মেলায় আগতদেরকে সম্যক ধারণা দেয়া হয়।

এছাড়া এই মেলায় রান্না প্রতিযোগিতার মাধ্যমে বৈচিত্র্যময় পুষ্টিকর ও সুস্বাদু খাবার তৈরির পদ্ধতি, পরিবেশন ও এর গুণাগুণ সম্পর্কে আগত লোকজনকে ধারণা দেয়া হয়।

মিঠামইন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. তানভীর হাসান জিকো’র ব্যবস্থাপনায় আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে সেরা স্টল ও পুষ্টিকর রান্না খাবার প্রতিযোগিতার শ্রেষ্ঠ রাঁধুনী নির্বাচনে অংশ নেন মিঠামইন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট আব্দুস শাহিদ ভূইয়া, উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রভাংশু সোম মহান, মিঠামইন থানার ওসি মো. জাকির রব্বানী, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মিনা খাতুন ময়না, মিঠামইন সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট শরীফ কামাল, উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আকন্দ, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা বদরুল আলম, উপজেলা পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা শ্যামল পাল, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম, হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. খোকন সাহা, ডা. মো. সানাউল্লাহ প্রমুখ।

এ সময় উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, হাসপাতালের কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর