কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


এপ্রিল পর্যন্ত চাল সহায়তা পাবেন হাওরের ক্ষতিগ্রস্তরা


 কিশোরগঞ্জ নিউজ ডেস্ক | ৯ জানুয়ারি ২০১৮, মঙ্গলবার, ৭:৪১ | হাওর 


হাওরের ছয় জেলায় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষুদ্র কৃষক ও মৎস্যজীবীসহ তিন লাখ ৮০ হাজার পরিবারকে ভিজিএফ কর্মসূচির আওতায় আরও তিন মাস সহায়তা দেবে সরকার।

ফেব্রুয়ারি থেকে এপ্রিল পর্যন্ত পরিবারপিছু ৩০ কেজি করে চাল দিতে সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসকদের বরাদ্দপত্র দিয়েছে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তর।

বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত সুনামগঞ্জের একলাখ ৬৮ হাজার পরিবার, সিলেটের ৫৫ হাজার, নেত্রকোণার ৫৮ হাজার, কিশোরগঞ্জে ৬৫ হাজার, হবিগঞ্জে ২৯ হাজার এবং মৌলভীবাজারের পাঁচ হাজার পরিবার এই সহায়তা পাবে।

সুনামগঞ্জের ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য ১৫ হাজার ১২০ টন চাল, সিলেটে চার হাজার ৯৫০ টন, নেত্রকোণায় পাঁচ হাজার ২২০ টন, কিশোরগঞ্জে পাঁচ হাজার ৮৫০ টন, হবিগঞ্জে দুই হাজার ৬১০ টন এবং মৌলভীবাজারের ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য ৪৫০ টন চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

গত বছরের এপ্রিল মাসের শুরুতে টানা বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে সিলেট, সুনামগঞ্জ, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ ও নেত্রকোনার বিস্তীর্ণ এলাকায় বোরো ধান তলিয়ে যাওয়ায় সর্বস্বান্ত হয় লাখ লাখ কৃষক।

ফসলহানির পর ২৩ এপ্রিল থেকে ৩১ জুলাই পর্যন্ত দেশের বিস্তীর্ণ হাওরাঞ্চলের ক্ষতিগ্রস্ত ৩ লাখ ৩০ হাজার পরিবারকে মাসে ৩০ কেজি করে চাল ও ৫০০ টাকা করে দেয় সরকার।

পরে আরও দুই দফায় খাদ্য সহায়তার সময় তিন মাস করে ছয় মাস বাড়িয়ে বাড়িয়ে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত করা হয়।

তৃতীয় দফায় ফেব্রুয়ারি থেকে এপ্রিল মাস পর্যন্ত হাওরের ছয় জেলায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোকে সহায়তায় ৩৪ হাজার ২০০ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ দিল সরকার।

নতুন করে বরাদ্দ দেওয়া চাল ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোকে সঠিকভাবে ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডভিত্তিক বিতরণ করতে জেলা প্রশাসকদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

উৎস: বিডিনিউজ২৪.কম




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর