কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


তানিয়া গণধর্ষণ-হত্যায় বাসচালক-হেলপারসহ পাঁচ আসামির ৮দিন করে রিমান্ড


 স্টাফ রিপোর্টার | ৮ মে ২০১৯, বুধবার, ৪:৫৬ | বিশেষ সংবাদ 


স্বর্ণলতা পরিবহনের চলন্ত বাসে নার্স শাহিনুর আক্তার তানিয়া (২৪)  গণধর্ষণ ও হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় বাসের চালক ও হেলপারসহ পাঁচ আসামির প্রত্যেককে আট দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। বুধবার (৮ মে) দুপুরে কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আল মামুন এই রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বাজিতপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. সারোয়ার জাহান আদালতে আসামিদের ১০ দিন করে রিমান্ড আবেদন করেন। এ আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত আট দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে মঙ্গলবার (৭ মে) রাতে নিহত শাহিনুর আক্তার তানিয়ার পিতা মো. গিয়াস উদ্দিন বাদী হয়ে চার জনের নামোল্লেখ এবং অজ্ঞাতনামা বেশ কয়েকজনকে আসামি করে বাজিতপুর থানায় মামলা দায়ের করেন।

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে দায়ের করা এই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নিয়োগ দেয়া হয় বাজিতপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. সারোয়ার জাহানকে।

মঙ্গলবার (৭ মে) দুপুরে কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে তানিয়ার মরদেহের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়। ময়নাতদন্তে ধর্ষণ ও আঘাতজনিত কারণে তানিয়ার মৃত্যুর আলামত মিলেছে। এছাড়া ডিএনএ ও প্যাথলজিক্যাল টেস্টের জন্য আলামত সংগ্রহ করে রাখা হয়েছে।

কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের পরিচালক ডা. রমজান মাহমুদ জানান, তিন সদস্য বিশিষ্ট মেডিকেল বোর্ড তানিয়ার মরদেহের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন করে। ময়নাতদন্তে ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর