কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


হোসেনপুরে ১০ টাকার পাটশাক বিক্রি নিয়ে দু’দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে পুলিশসহ আহত ৫০


 মো. জাকির হোসেন, স্টাফ রিপোর্টার, হোসেনপুর | ৯ মে ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৭:২৯ | হোসেনপুর 


হোসেনপুরে ১০ টাকার পাটশাক বিক্রি নিয়ে দু’দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে পুলিশসহ কমপক্ষে ৫০ জন আহত হয়েছে। বুধবার (৮ মে) রাতে উপজেলার নতুন বাজারে দফায় দফায় এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশকে হিমশিম খেতে হয়। পরে ১১৭ রাউন্ড গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ। বর্তমানে এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, বুধবার ( ৮মে) রাতে উপজেলার নতুন বাজারে সাহেবের চর গ্রামের কৃষক মুস্তফা মিয়া পাট শাক বিক্রি করতে যায়। এ সময় পদুরগাতি গ্রামের কুকিজ মিয়া পাট শাক ক্রয়ের দরদাম নিয়ে মুস্তফার সাথে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এরই ধারাবাহিকতায় রাত ৯টার দিকে সাহেবের চর ও পদুরগাতি গ্রামের দু’পক্ষের শতশত লোকজন ধারালো অস্ত্র নিয়ে নতুন বাজার এলাকায় জড়ো হয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে। এ সময় পুলিশ ১১৭ রাউন্ড গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

সংঘর্ষে পুলিশ ও উভয়পক্ষের অন্তত ৫০জন আহত হয়। গুরুতর আহতরা হলেন, হোসেনপুর থানার এসআই আসাদুল্লাহ, এএসআই মেহেদী হাসান, মো. মানিক মিয়া, কনস্টেবল ফেরদৌছ রায়হান, আমিনুল ইসলাম, মো. নোমান মিয়া (৫০), ওয়ার্ড কাউন্সিলর বাবুল মিয়া (৪০), কুকিজ মিয়া (৩৮), লিটন মিয়া (৪০), রিটন মিয়া (৩৮), ইব্রাহিম মিয়া (৬০), পায়েল (৩৮), ওমর ফারুক ( ৪০), আমির হোসেন (৪০), আলফাজ (৪৫), সাদেক (২০), শাহীন (২৫) ও শামীম (৩০)। আহতরা হোসেনপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল ও ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এ দিকে সংঘর্ষের পর গ্রেপ্তার আতংকে উপজেলার সাহেবের চর ও পদুরগাতি এলাকা পুরুষশুণ্য হয়ে পড়েছে। তবে যেকোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

হোসেনপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আবুল হোসেন জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর