কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


বাসে তানিয়া ধর্ষণ-হত্যার প্রতিবাদে ঈশা খাঁ বিশ্ববিদ্যালয়ের মানববন্ধন


 স্টাফ রিপোর্টার | ১৫ মে ২০১৯, বুধবার, ১:৪৯ | কিশোরগঞ্জ সদর 


নারীর প্রতি সহিংসতা রোধ ও কটিয়াদীর মেয়ে নার্স শাহিনুর আক্তার তানিয়া ধর্ষণ ও হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে মুখে কালো কাপড় বেঁধে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন ঈশা খাঁ ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, বাংলাদেশ এর শিক্ষার্থীরা। বুধবার (১৫ মে) বেলা ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত কিশোরগঞ্জ শহরের নীলগঞ্জ রোড এলাকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনের সড়কে এই কর্মসূচি পালন করা হয়।

কর্মসূচিতে সংহতি প্রকাশ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ সুলতান উদ্দিন ভূঞা, বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর অনিল চন্দ্র সাহা, কলা ও সামজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডীন প্রফেসর মোঃ আরজ আলী, লাইব্রেরী সাইন্স বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর নূরুল আমিন, সহকারী প্রক্টর ও ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক মাহবুবা অনন্যা, ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের প্রভাষক নিবেদিতা দত্ত প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের চেয়ারম্যান বদরুল হুদা সোহেল এর সঞ্চালনায় কর্মসূচিতে আইন বিভাগের শিক্ষার্থী আমেনা আক্তার, ফরহাদ হোসেন, ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী আব্দুল্লাহ আল মামুন প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

মানববন্ধনে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ সুলতান উদ্দিন ভূঞা বলেন, কিছুদিন আগেও ফেনীর সোনাগাজীর নুসরাত জাহান রাফি হত্যাকাণ্ডের বিচারের দাবিতে আমরা মানববন্ধন করেছিলাম। নুসরাতের রক্ত শুকাতে না শুকাতেই আবারও কিশোরগঞ্জের তানিয়া ধর্ষণ ও হত্যাকাণ্ডের শিকার হলো। এটি অত্যন্ত বেদনাদায়ক। আমরা এসব ঘটনার পুনরাবৃত্তি চাই না। আমরা চাই সরকার এসব ঘটনায় জড়িত অপরাধীদের দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিয়ে সমাজে উজ্জ্বল নজির সৃষ্টি করবেন।

মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা তাদের বক্তব্যে বলেন, দেশে ধর্ষণ ও হত্যাকাণ্ডের বিষয় যেন এখন নিত্যদিনের ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। নারীরা আজ ঘরে-বাইরে কোথাও নিরাপত্তা পাচ্ছেন না। রাস্তা-ঘাট থেকে শুরু করে পাবলিক পরিবহনে নিত্যদিন শ্লীলতহানিসহ যৌন নিপীড়নের শিকার হচ্ছেন। ধর্ষণ ও হত্যাকা- এখন নতুন এক আতঙ্কের নাম। আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন রাখছি, এসব হত্যকাণ্ডের দৃষ্টান্তমূলক বিচার করবেন এবং প্রতিটি নারীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করবেন।

মানববন্ধন কর্মসূচিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শতাধিক শিক্ষার্থীসহ বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত সকল শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অংশ নেন।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর