কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


পাকুন্দিয়ায় চার প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা


 স্টাফ রিপোর্টার | ১৮ মে ২০১৯, শনিবার, ৭:৩৭ | পাকুন্দিয়া  


মেয়াদোত্তীর্ণ ময়দা, বাসি পঁচা খাবার, মূল্য টেম্পারিং এবং খাবারে রং মেশানোর দায়ে পাকুন্দিয়ায় চারটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে মোট ১৪ হাজার টাকা জরিমানা করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। শনিবার (১৮ মে) দুপুরে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের কিশোরগঞ্জের সহকারী পরিচালক মো. ইব্রাহীম হোসেন বাজার তদারকি কার্যক্রমের অংশ হিসেবে এই অভিযান পরিচালনা করেন।

জরিমানা দেওয়া প্রতিষ্ঠান চারটি হলো, উপজেলার মঠখোলা বাজারের মক্কা হোটেল, পাকুন্দিয়া পৌর বাজারের মেসার্স বেস্ট এন্টারপ্রাইজ (ওয়ান টু নাইনটি নাইন শপ), শ্রীরামদী আলুর স্টোর বাজারের কাইয়ুম ও ফেরদৌসের ইফতারির দোকান।

শনিবার (১৮ মে) দুপুরের জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের কিশোরগঞ্জের সহকারী পরিচালক মো. ইব্রাহীম হোসেন পাকুন্দিয়া উপজেলার বিভিন্ন বাজারে বাজার তদারকি কার্যক্রম পরিচালনা করেন।

এ সময় মেয়াদোত্তীর্ণ ময়দা ও বাসি পঁচা খাবার রাখার দায়ে মঠখোলা বাজারের মক্কা হোটেলকে পাঁচ হাজার টাকা, মূল্য টেম্পারিং ও মেয়াদোত্তীর্ণ ড্রাই কেক রাখার দায়ে পাকুন্দিয়া পৌর বাজারের মেসার্স বেস্ট এন্টারপ্রাইজ (ওয়ান টু নাইনটি নাইন শপ) কে তিন হাজার টাকা, ইফতারির খাবারে রং মেশানোর দায়ে শ্রীরামদী আলুর স্টোর বাজারের কাইয়ুমের দোকানকে তিন হাজার টাকা এবং একই অপরাধের দায়ে ফেরদৌসের ইফতারির দোকানকে তিন হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

জেলা পুলিশের সহযোগিতায় পরিচালিত এ অভিযানে পাকুন্দিয়া উপজেলা সহযোগী স্যানিটারী ইন্সপেক্টর মো.ফরিদ উদ্দিনসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর কিশোরগঞ্জের সহকারী পরিচালক মো. ইব্রাহীম হোসেন বলেন, রমজান মাসে নিয়মিত বাজার মনিটরিংয়ের অংশ হিসেবে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। জনস্বার্থে এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর