কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


পাকুন্দিয়ায় ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণ মামলায় দুই কিশোর গ্রেপ্তার


 স্টাফ রিপোর্টার | ২১ মে ২০১৯, মঙ্গলবার, ৫:৫৬ | পাকুন্দিয়া  


পাকুন্দিয়ায় ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীকে (১১) ধর্ষণের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় কাওসার (১৪) ও ফেরদৌস (১৬) নামে দুই কিশোরকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সোমবার (২০ মে) রাতে উপজেলার চণ্ডিপাশা ইউনিয়নের ষাইটকাহন গ্রামের বাড়ি থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার হওয়া দুই কিশোরের মধ্যে কাওসার উপজেলার ষাইটকাহন গ্রামের রেনু মিয়ার ছেলে এবং ফেরদৌস একই গ্রামের সেলিম মিয়ার ছেলে।

মঙ্গলবার (২১ মে) দুপুরে দু’জনকেই আদালতে পাঠানো হয়ে।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, রোববার (১৯মে) রাত সাড়ে ৮টার দিকে বাড়ির সামনের একটি দোকানে বিস্কুট কিনতে যাওয়ার সময় শিশুটিকে ফেরদৌস এবং কাওসার কৌশলে ফেরদৌসদের বাড়িতে নিয়ে যায়। পরে বাড়ির একটি হাফবিল্ডিং ঘরে ঢুকিয়ে ভেতর দিয়ে দরজা লাগিয়ে দেয়।

ওই সময় শিশুটিকে জোরপূর্বক একটি খাটে শুইয়ে ফেরদৌস শিশুটির মুখ চেপে ধরে রাখে এবং কাওসার ওই শিশুটিকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। একপর্যায়ে শিশুটি তার মুখ থেকে ফেরদৌসের হাত সরিয়ে দিয়ে চিৎকার শুরু করে।

তার চিৎকার শুনে ফেরদৌসের চাচাতো ভাই শাহিনসহ আশপাশের কয়েকজন এগিয়ে আসে। এসময় ফেরদৌস ও কাওসার শিশুটিকে ঘরের বাইরে বের করে দিয়ে উভয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় সোমবার (২০ মে) রাতে ওই শিশুর মা বাদী হয়ে দুজনকে অভিযুক্ত করে নারী ও শিশু নির্র্যাতন আইনে পাকুন্দিয়া থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর রাতেই অভিযুক্ত দুই কিশোরকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

পাকুন্দিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মফিজুর রহমান বলেন, ঘটনায় ওই শিশুর মা বাদী হয়ে দুজনকে অভিযুক্ত করে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেছেন। অভিযুক্ত দুই কিশোরকে গ্রেপ্তার করে মঙ্গলবার (২১ মে) দুপুরে আদালতে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া ভিকটিমকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য ২৫০শয্যা বিশিষ্ট কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর