কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


পুড়িয়ে দেওয়ার ২২ দিন পর মারা গেছেন কটিয়াদীর রাজন


 মো. রফিকুল হায়দার টিটু, স্টাফ রিপোর্টার, কটিয়াদী | ১০ জুন ২০১৯, সোমবার, ৬:১৪ | কটিয়াদী 


কটিয়াদীতে দুর্বৃত্তের আগুনে দগ্ধ হওয়ার পর ২২ দিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে হেরে গেলেন আবদুর রহিম রাজন (২৭)। সোমবার (১০ জুন) দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন এন্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।

এর আগে গত ১৯মে রাতের আধাঁরে কতিপয় দুর্বৃত্ত কটিয়াদী মডেল থানা থেকে ৫০ গজ দূরত্বের সাবরেজিস্ট্রি অফিসের পিছনের গলিতে রাজনের গায়ে তরল দাহ্য পদার্থ ঢেলে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা চালায়।

নিহত আব্দুর রহিম রাজন কটিয়াদী পৌর সদরের পূর্বপাড়া মহল্লার প্রবাসী মস্তোফা মিয়ার ছেলে। তিনি এক সন্তানের জনক।

গত ১৯ মে রাতে রাজন দুর্বৃত্তদের আগুনে দগ্ধ হওয়ার পর স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে প্রথমে কটিয়াদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাতেই তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। এরপর থেকে তিনি সেখানেই চিকিৎসাধীন ছিলেন।

এ ঘটনায় রাজনের মামা মামুনুর রশিদ নয়ন তিন জনের নামোল্লেখ ও পাঁচ জন অজ্ঞাত ব্যক্তিকে আসামি করে কটিয়াদী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন।

গত ১৯ মে রাতে এই ন্যাক্কারজনক ঘটনার দীর্ঘদিন পর আজো ঘটনার প্রকৃত রহস্য উদঘাটন হয়নি।

রাজনের বড় মামা মানিক মিয়া দগ্ধ রাজনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, রাজন চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার (১০ জুন) দুপুরে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে।

এদিকে রাজনের মৃত্যুর সংবাদটি দ্রুত এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে। এখন তার পরিবারে চলছে শোকের মাতম।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর