কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


পাকুন্দিয়ায় চোরাই মোটর সাইকেলসহ চোরচক্রের সদস্য গণধর্ষণসহ ৮ মামলার আসামি গ্রেপ্তার


 স্টাফ রিপোর্টার | ১৭ জুন ২০১৯, সোমবার, ২:৪২ | পাকুন্দিয়া  


পাকুন্দিয়ায় চোরাই মোটর সাইকেলসহ লিটন ওরফে রিটন (৩২) নামে আন্তঃজেলা মোটর সাইকেল চোর চক্রের সক্রিয় এক সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রোববার (১৬ জুন) দিবাগত রাতে উপজেলার চারকাওনা নতুন বাজার থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পাকুন্দিয়া থানার ওসি মো. মফিজুর রহমানের নির্দেশনায় উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. আসাদুজ্জামান ও এসআই জাহাঙ্গীর আলমের নেতৃত্বে সঙ্গীয় ফোর্স তাকে গ্রেপ্তার করে। এসময় মোটর সাইকেল চোরচক্রের সদস্য লিটন ওরফে রিটন এর কাছ থেকে একটি চোরাই মোটর সাইকেল, নয় পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ও মোটর সাইকেলের লক ভাঙার একটি চাবি উদ্ধার করা হয়।

গ্রেপ্তার হওয়া লিটন ওরফে রিটন উপজেলার চালিয়াগোপ গ্রামের মুর্শিদ উদ্দিনের ছেলে। তার নামে পাকুন্দিয়া, কিশোরগঞ্জ সদর ও কাপাসিয়া থানায় মোটর সাইকেল চুরি, গণধর্ষণ ও ইয়াবাসহ ৮টি মামলা রয়েছে।

সোমবার (১৭ জুন) দুপুরে পাঁচ দিনের রিমান্ড চেয়ে তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ জানায়, রোববার (১৬ জুন) দিবাগত রাতে পাকুন্দিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. আসাদুজ্জামান ও এসআই জাহাঙ্গীর আলমের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ওয়ারেন্ট তামিল ও মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করছিল। এসময় পাকুন্দিয়া থানার ওসি মুঠোফোনে তাদের জানান, চরকাওনা নতুন বাজারে আমিনুল ইসলামের দোকানের সামনে পাকারাস্তার পাশে কতিপয় লোক মাদকদ্রব্য ক্রয়-বিক্রয় করছে।

এ সংবাদ পেয়ে এসআই মো. আসাদুজ্জামান সঙ্গীয় অফিসার ও ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে লিটন তার দুই সহযোগীকে নিয়ে মোটর সাইকেলযোগে পালানোর চেষ্টা করে। এসময় পুলিশ উপস্থিত জনতার সহযোগিতায় লিটনকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হলেও অপর দুজন পালিয়ে যায়।

পরে পুলিশ তার কাছে মোটরসাইকেলের বিষয়ে জানতে চাইলে সে বৈধ কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারেনি। এসময় উপস্থিত জনতার সামনে লিটনের দেহ তল্লাসি করে তার প্যান্টের ডান পকেট থেকে নয় পিস ইয়াবা ট্যাবলেট এবং বাম পকেট হইতে মোটরসাইকেলের লক ভাঙার একটি চাবি উদ্ধার করা হয়।

এ ব্যাপারে পাকুন্দিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মফিজুর রহমান জানান, গ্রেপ্তারকৃত লিটন আন্তঃজেলা মোটর সাইকেল চোর চক্রের সক্রিয় সদস্য। তার বিরুদ্ধে পাকুন্দিয়া থানা, কিশোরগঞ্জ সদর ও কাপাসিয়া থানায় মোটরসাইকেল চুরি, গণধর্ষণ ও ইয়াবাসহ ৮টি মামলা রয়েছে।

পাঁচ দিনের রিমান্ড চেয়ে তাকে সোমবার (১৭ জুন) দুপুরে আদালতে পাঠানো হয়েছে বলেও ওসি জানিয়েছেন।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর