কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কন্যা হারানো অসহায় পিতার পাশে ‘আলোর ঝলক’


 স্টাফ রিপোর্টার | ২ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার, ৮:২৬ | সংগঠন সংবাদ 


এবার ডোবা থেকে হাত বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার হওয়া জিদনী আক্তার (৪) নামে একটি শিশুর পিতার পাশে সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছে কটিয়াদী উপজেলার অন্যতম স্বেচ্ছাসেবি সংগঠন ‘আলোর ঝলক’।

মঙ্গলবার (২ জুলাই) সংগঠনটির পক্ষ থেকে নিহত শিশু জিদনীর পিতার হাতে নগদ ১৫হাজার টাকা তুলে দেওয়া হয়।

সংগঠনের সভাপতি কবির উদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক মাজহারুল হক জাকিরের নেতৃত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন ডা. কফিল উদ্দিন, অলি উল্লাহ উজ্জ্বল, মনোয়ার হোসেন রিপন মাষ্টার, রফিকুল ইসলাম রবি, রাসেল আকন্দ টুটুল, নিশাদ মিয়া, মিজানুর রহমান,সালাহ উদ্দিন, জামাল উদ্দিন প্রমুখ।

সংগঠন সংশ্লিষ্টরা জানান, গত কয়েকদিন যাবত প্রতিকূল আবহাওয়ার মাঝেও নিহত জিদনীর পিতার পাশে থেকে সার্বিকভাবে আমরা সহযোগি করছি। আমাদের এই নিরলস প্রচেষ্টা অস্থিরতা থেকে সমাজকে কিছুটা হলেও শিক্ষা দেবে। একইসাথে মানুষের দুঃখ-কষ্ট কমে। সমাজে ভারসাম্যতা আসে।

অসহায় মানুষের পাশে যিনি দাঁড়ান তাঁর মধ্যেও প্রশাস্তি আসে। আবার যেসব অসহায় মানুষ সেবা পেল, তাদের মধ্যেও শান্তি বিরাজ করে। এতে উভয়ই উপকৃত হয়।

প্রসঙ্গত, কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলার মসূয়া ইউনিয়নের বৈরাগীর চর এলাকা থেকে নিখোঁজের একদিন পর গত শনিবার (২৯ জুন) ডোবা থেকে হাত বাঁধা অবস্থায় জিদনী আক্তার (৪) নামে একটি শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত জিদনী ওই এলাকার হতদরিদ্র হোসেন মিয়ার মেয়ে।

তাৎক্ষণিকভাবে নগদ অর্থসহযোগিতাসহ সার্বিকভাবে অসহায় এই পিতার পাশে দাড়িয়েছে অজয় পাড়া গায়ে একদল তরুণদের সমন্বয়ে গড়ে ওঠা ‘আলোর ঝলক’ সংগঠনটির ছাত্র-শিক্ষক, ব্যবসায়ী।

প্রতি বছর ঈদ ও বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগ ক্ষতিগ্রস্ত অসহায়-গরীব মানুষের পাশে থেকে সহযোগিতা করে যাচ্ছে সংগঠনটি।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর