কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কিশোরগঞ্জে গাঁজাবাহী প্রাইভেট কারসহ আটক দুই, ৩০ কেজি গাঁজা উদ্ধার


 স্টাফ রিপোর্টার | ৬ জুলাই ২০১৯, শনিবার, ১২:৫০ | অপরাধ 


কিশোরগঞ্জে গাঁজাবাহী প্রাইভেট কারসহ দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ। শুক্রবার (৫ জুলাই) দিবাগত রাত পৌনে ১২টার দিকে কিশোরগঞ্জ-ময়মনসিংহ মহাসড়কের কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার কাটাবাড়িয়া এলাকায় প্রাইভেট কারটিতে (ঢাকা মেট্রো-গ ২১-০৬০১) তল্লাসি চালিয়ে ৩০ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়।

এছাড়া প্রাইভেট কার চালক মো. রুবেল (২৮) ও বাহক মহরম আলী (২৭) কে আটক করা হয়। আটক গাঁজাবাহী প্রাইভেট কার চালক মো. রুবলে ঢাকার ডেমরা থানার থুলথুলিয়া গ্রামের মো. আবেদ আলী মোল্লার ছেলে এবং বাহক মহরম আলী সিলেট সদরের খরপাড়া মীরাবাজার এলাকার মৃত লোকমান খানের ছেলে।

ভৈরব থেকে ময়মনসিংহে প্রাইভেট কারে গাঁজার চালানটি নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল বলে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে রুবেল ও মহরম জানিয়েছে।

পুলিশ জানায়, ভৈরব থেকে ময়মনসিংহে প্রাইভেট কারে করে গাঁজা পাচার করা হচ্ছে, এমন খবর পেয়ে কিশোরগঞ্জ সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আনোয়ার ও কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি মো. আবুবকর সিদ্দিক এর নেতৃত্বে পুলিশ কিশোরগঞ্জ-ময়মনসিংহ মহাসড়কের কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার কাটাবাড়িয়া এলাকায় চেকপোস্ট বসায়।

শুক্রবার (৫ জুলাই) রাত পৌনে ১২টার দিকে প্রাইভেট কারটি চেকপোস্ট অতিক্রম করার চেষ্টা করার সময় আটক করে তল্লাসি চালানো হয়।

তল্লাসিতে প্রাইভেটকারের ভেতরে থাকা দুইটি চটের বস্তায় মোট ৮টি প্যাকেটে ৩০ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়। এ সময় প্রাইভেট কার চালক মো. রুবেল ও বাহক মহরম আলীকে আটকের পর প্রাইভেট কার ও গাঁজাসহ তাদের কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।

কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি মো. আবুবকর সিদ্দিক জানান, উদ্ধার হওয়া গাঁজার আনুমানিক মূল্য সাড়ে তিন লাখ টাকা। এ ঘটনায় এসআই পল্লব কুমার সরকার বাদী হয়ে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানায় মামলা করেছেন।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর