কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


পাকুন্দিয়ায় ট্রাকের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষে সিএনজি চালকসহ ৪ জন নিহত


 স্টাফ রিপোর্টার | ২৭ জুলাই ২০১৯, শনিবার, ১০:৪৬ | পাকুন্দিয়া  


পাকুন্দিয়ায় ট্রাকের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষে সিএনজিচালিত অটোরিকশার চালক ও এক নারীসহ ৪ জন নিহত হয়েছেন। শনিবার (২৭ জুলাই) সকাল সোয়া ৮টার দিকে মঠখোলা-কটিয়াদী সড়কে উপজেলার বুরুদিয়া ইউনিয়নের মান্দারকান্দি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে মর্মান্তিক এই দুর্ঘটনাটি ঘটে।

দুর্ঘটনায় নিহতদের মধ্যে ঘটনাস্থলেই মারা যান সিএনজিচালক শরীফ (৩৫) এবং মঠখোলা বাজারের জুতা ব্যবসায়ী খোকন মিয়া (২৮)। নিহত অপর দুইজনের নাম হচ্ছে, রাজিয়া খাতুন (৭৫) ও অহিদ মিয়া (৩৮)।

দুর্ঘটনায় মারাত্মক আহত হওয়া রাজিয়া খাতুনকে কটিয়াদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এছাড়া আশঙ্কাজনক অবস্থায় অহিদ মিয়াকে প্রথমে কটিয়াদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে বাজিতপুর জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় ঘাতক ট্রাক (ঢাকা মেট্রো ট-১৮৮৫৫৫) এবং চালক বাচ্চু মিয়াকে আটক করেছে পুলিশ। ট্রাকচালক বাচ্চু মিয়া গাজীপুর জেলার শ্রীপুর উপজেলার বাসিন্দা।

পুলিশ জানায়, পাথর বোঝাই ট্রাকটি সিলেট থেকে গাজীপুরের দিকে যাচ্ছিল।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, সিএনজিচালিত অটোরিকশাটি মঠখোলা বটতলা থেকে যাত্রী নিয়ে কটিয়াদী যাচ্ছিল। সকাল সোয়া ৮টার দিকে মান্দারকান্দি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে বিপরীত দিক থেকে আসা ট্রাকটি সরাসরি সিএনজিটিকে চাপা দেয়।

এতে সিএনজিটি দুমড়ে-মুচড়ে যায় এবং ঘটনাস্থলেই সিএনজিচালক শরীফ এবং মঠখোলা বাজারের জুতা ব্যবসায়ী খোকন মিয়ার মৃত্যু হয়। এছাড়া সিএনজিতে থাকা বাকি চার যাত্রীর মধ্যে রাজিয়া খাতুন ও অহিদ মিয়া নামে দুই যাত্রী গুরুতর আহত হন।

আহত দুই সিএনজি যাত্রীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পর কটিয়াদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রাজিয়া খাতুন এবং ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার পথে অহিদ মিয়ার মৃত্যু হয়।

নিহতদের মধ্যে সিএনজিচালক শরীফ পাকুন্দিয়া উপজেলার নগরহাজরাদী গ্রামের সিরাজ মিয়ার ছেলে, খোকন মিয়া উপজেলার চামরাইদ গ্রামের হাদিউল ইসলামের ছেলে, অহিদ মিয়া উপজেলার মেরাতলা গ্রামের সিরাজ মিয়ার ছেলে এবং রাজিয়া খাতুন কাপাসিয়া উপজেলার আড়ালিয়া গ্রামের মৃত ইসহাক মিয়ার স্ত্রী।

খবর পেয়ে আহুতিয়া তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহত সিএনজিচালক শরীফ এবং মঠখোলা বাজারের জুতা ব্যবসায়ী খোকন মিয়ার লাশ উদ্ধার করে।

এ ব্যাপারে আহুতিয়া তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক মু. শফিকুল ইসলাম জানান, চালকসহ ঘাতক ট্রাকটিকে আটক করা হয়েছে। এ ব্যাপারে পরবর্তি আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর