কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কিশোরগঞ্জে বাস ভাড়ার অতিরিক্ত টাকা চাওয়ায় অনন্যা পরিবহনের হেলপারের কারাদণ্ড


 স্টাফ রিপোর্টার | ১৬ আগস্ট ২০১৯, শুক্রবার, ৭:২৮ | বিশেষ সংবাদ 


কিশোরগঞ্জে কৌশলে নির্ধারিত বাস ভাড়ার অতিরিক্ত টাকা চাওয়ায় মো. সোহেল মিয়া (২৩) নামে এক পরিবহন শ্রমিককে ১৫ দিনের কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। শুক্রবার (১৬ আগস্ট) দুপুরে শহরের গাইটাল আন্তঃজেলা বাস টার্মিনালে কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানা পুলিশের সহযোগিতায় জেলা কালেক্টরেটের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মনোয়ার হোসেন এই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

দণ্ডিত মো. সোহেল মিয়া পাকুন্দিয়া উপজেলার সুখিয়া গ্রামের মৃত জবাব আলীর ছেলে। সে অনন্যা পরিবহনের হেলপার।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্র জানায়, শুক্রবার (১৬ আগস্ট) দুপুরে শহরের গাইটাল আন্তঃজেলা বাস টার্মিনালে তিন যাত্রী অনন্যা পরিবহনের কাউন্টার থেকে কিশোরগঞ্জ থেকে ঢাকার তিনটি টিকিট জনপ্রতি নির্ধারিত ভাড়া ২২০ টাকায় ক্রয় করেন। কিন্তু বাসের শ্রমিকেরা কৌশলে বাসের আসন দখলে রেখে আসনপ্রতি ১০০ টাকা অতিরিক্ত দাবি করেন।

বিষয়টি কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানা পুলিশকে জানানোর পর দুপুর ১টার দিকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক জেলা কালেক্টরেটের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মনোয়ার হোসেন এর নেতৃত্বে কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানার পরিদর্শক (অপারেশন) মো. জাকির হোসেন ও পরিদর্শক (ইন্টিলিজেন্স এন্ড কমিউনিটি পুলিশিং) জয়নাল আবেদীন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে শহরের গাইটাল আন্তঃজেলা বাস টার্মিনালে ছুটে যান।

সেখানে গিয়ে ঘটনার সত্যতা পাওয়া যাওয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক জেলা কালেক্টরেটের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মনোয়ার হোসেন অনন্যা পরিবহনের হেলপার মো. সোহেল মিয়াকে ১৫ দিনের কারাদণ্ড প্রদান করেন।

পরে তাকে কিশোরগঞ্জ জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক জেলা কালেক্টরেটের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মনোয়ার হোসেন জানান, যাত্রীদের নিকট বাস ভাড়ার অতিরিক্ত টাকা দাবি করায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনের ৪০ ধারায় অনন্যা পরিবহনের হেলপার সোহেল মিয়াকে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর