কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


ঘাগড়ায় আওয়ামী লীগ সভাপতির লোকজনের হামলায় নিহত ১, আহত ১০


 স্টাফ রিপোর্টার | ২১ আগস্ট ২০১৯, বুধবার, ২:৩২ | মিঠামইন 


মিঠামইনের ঘাগড়ায় গোষ্ঠীগত দ্বন্দ্বের জের ধরে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতির লোকজনের হামলায় শাহজাহান মিয়া (৫৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আরো অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে।

বুধবার (২১ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে মিঠামইন উপজেলার ঘাগড়া ইউনিয়নের ভরা নয়াহাটি গ্রামে রক্তক্ষয়ী এই হামলার ঘটনা ঘটে।

নিহত শাহজাহান মিয়া ভরা নয়াহাটির মৃত ধন মিয়ার ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, ঘাগড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ভরা চড়িয়াবাড়ির আইয়ুব আলীর সাথে ৩নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য ভরা নয়াহাটির হাবিব সরকারের দীর্ঘদিন যাবত গোষ্ঠীগত বিরোধ চলে আসছিল।

মঙ্গলবার (২০ আগস্ট) বিকালে গ্রামের পাশের পায়ে হাঁটার রাস্তা নিয়ে দু’পক্ষের লোকজনের মধ্যে কথা কাটাকাটি ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পরে এ নিয়ে ভরা নতুন বাজারে দু’পক্ষ সমঝোতা বৈঠকেও বসে। কিন্তু আইয়ুব আলীর লোকজন সমঝোতা প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে।

পরে বুধবার (২১ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি আইয়ুব আলীর শতাধিক লোকজন দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ভরা নয়াহাটি গ্রামে গিয়ে হাবিব সরকারের বাড়িতে উপর অতর্কিতে হামলা চালায়।

এ সময় আত্মরক্ষার্থে হাবিব সরকারের বাড়ির লোকজন এদিক-সেদিক ছোটাছুটি শুরু করে। তখন হাবিব সরকারের ছোট ভাই শাহজাহান মিয়াকে সামনে পেয়ে হামলাকারীরা তার বুকে বল্লম দিয়ে সজোরে আঘাত করে এবং ইট দিয়ে মাথা থেঁতলে দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই শাহজাহান মিয়ার মৃত্যু হয়।

এছাড়া হামলায় আরো অন্তত ১০ জন আহত হয়। আহতদের মিঠামইন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

মিঠামইন থানার ওসি মো. জাকির রব্বানী জানান, পূর্ব বিরোধের জের ধরে চালানো অতর্কিত হামলায় এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনাটি ঘটেছে। বর্তমানে পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এছাড়া নিহত শাহজাহান মিয়ার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর