কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


ছুটি পেয়েও মালয়েশিয়া থেকে বাড়ি ফেরা হলো না হোসেনপুরের বাবুলের


 মিছবাহ উদ্দিন মানিক | ২৬ আগস্ট ২০১৯, সোমবার, ৫:৫৬ | প্রবাস 


দুই বছর আগে সংসারে সচ্ছলতা ফেরাতে মালয়েশিয়া গিয়েছিলেন হোসেনপুরের বাবুল মিয়া। সম্প্রতি দেশে ফেরার জন্য কোম্পানী থেকে ছুটিও ম্যানেজ করেছিলেন। পরিবার আর প্রিয়জনদের জানিয়েছিলেনও সে কথা। নিচ্ছিলেন সে অনুযায়ী প্রস্তুতি।

কিন্তু পরিবার ও প্রিয়জনদের সাথে আর দেখা করা হলো না তার। বাংলাদেশে ফেরার জন্য ব্যাগ-স্যুটকেস গুছিয়ে বাবুল রওনা হয়েছিলেন কুয়ালালামপুর বিমানবন্দরের উদ্দেশ্যে। বিধিবাম! কুয়ালালামপুর বিমানবন্দরে এসে পা পিছলে পড়ে গিয়ে গুরুতর আহত হন তিনি।

কুয়াললামপুর বিমানবন্দরের পুলিশ আহত বাবুলকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার (২৩ আগস্ট)  রাতে তিনি পাড়ি জমান না ফেরার দেশে।

মালয়েশিয়ায় এমন দুর্ভাগ্যজনকভাবে মারা যাওয়া বাবুল মিয়া হোসেনপুর পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের পূর্ব ঢেকিয়া গ্রামের মৃত আব্দুল জব্বারের ছেলে।

তাঁর মৃত্যুর খবরে পরিবারটিতে এখন চলছে শোকের মাতম। স্বজনদের কান্না আর আহাজারি ভারি হয়ে ওঠেছে এলাকার পরিবেশ।

পারিবারিক সূত্র জানায়, বাবুল মিয়া পূর্ব ঢেকিয়া গ্রামের মৃত আব্দুল জব্বারের তৃতীয় পুত্র। সংসারে সচ্ছলতা ফেরাতে ২০১৭ সালের মাঝামাঝিতে ধারদেনা করে তিনি মালয়েশিয়ায় পাড়ি জমান।

বাবুল মিয়া মালয়েশিয়ার আইভরি ফার্নিচার কোম্পানীতে শ্রমিকের চাকুরী করতেন। প্রবাসে থাকা মানুষটি পরিবারের টানে ছুটিতে ফিরতে চেয়েছিলেন নিজগ্রামের স্বজনদের কাছে। কিন্তু একটি অকস্মাত দুর্ঘটনা তছনছ করে দিয়েছে সব।

বাবুল মিয়ার এমন মৃত্যুতে অসহায় পরিবারটিতে নেমে এসেছে হতাশা। পরিবারের একমাত্র উপার্জনশীল ব্যক্তির মৃত্যুতে পরিবারে নেমে এসেছে অন্ধকার। কান্না থামছে না স্ত্রী, পুত্র-কন্যা আর স্বজনদের।

জানা গেছে, বাবুল মিয়ার স্ত্রী ছাড়াও দুই মেয়ে ও এক শিশু পুত্র রয়েছে। তাদের কান্না আর আহাজারি থামছেই না। স্থানীয়রাও তাদের সমবেদনা জানানোর কোন ভাষা পাচ্ছেন না।

বাবুল মিয়ার স্ত্রী রোকসানা খাতুন সরকারের কাছে স্বামীর লাশ দেশে ফিরিয়ে আনার দাবি জানিয়েছেন। তিনি কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, আমি স্বামীর লাশ ফেরত চাই। তার মুখটা একবার দেখে নিজ বাড়িতে দাফন করতে চাই।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর