কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


মৌমাছির সাথে শত্রুতা!


 মো. জাকির হোসেন | ২৮ আগস্ট ২০১৯, বুধবার, ৯:০৫ | কিশোরগঞ্জ সদর 


কিশোরগঞ্জে সন্ধ্যায় হুমকি দিয়ে রাতেই খামারির প্রায় তিন লাখ টাকার মৌমাছি মেরে ফেলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার বিন্নাটি ইউনিয়নের আউলিয়াপাড়া গ্রামের হযরত আলীর বাড়িতে মঙ্গলবার (২৭ আগস্ট) রাত ১০টার পর থেকে ভোর হওয়ার মধ্যে এ ঘটনা ঘটেছে।

খামারি খামারি মো. শফিকুল ইসলাম শফিক জানান, প্রতি দিনের মত তিনি মঙ্গলবার (২৭ আগস্ট) সন্ধ্যায় মৌমাছিদের খাবার দিয়ে রেখে যান। কিন্তু পর দিন সকাল এসে দেখতে পান তাঁর খামারের মৌমাছিগুলো মরে মরে এক এক জায়গায় পড়ে জড়ো হয়ে রয়েছে। যা স্বাভাবিক মৃত্যু নয় বলে তার অভিযোগ। এতে ৫০টি বাক্সের প্রায় ৩ লাখ টাকার মৌমাছি মেরে ফেলা হয়েছে বলে খামারি মো. শফিকুল ইসলাম শফিক জানান।

বুধবার (২৮ আগস্ট) সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, শফিকুলের সারিবদ্ধ মৌমাছির বাক্সের আশপাশে মৌমাছি মরে পড়ে রয়েছে। এ সময় শফিকুল কান্না জড়িত কন্ঠে এ প্রতিবেদকে জানান, আমি মৌমাছি লালন-পালন ও মধু সংগ্রহের উপর বিআইএ থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে দীর্ঘ ১৪ বছর যাবৎ মৌমাছি লালন-পালন করে মধু উৎপাদন করে বাণিজ্যিকভাবে মধু বিক্রি করে আসছি। যা দিয়ে সংসার চলতো। আজ আমার মৌমাছি গুলি এভাবে না মেরে যদি আমাকে কোন কিছু দিয়ে আঘাত করে আহত করতো, তবু আমি এত কষ্ট পেতাম না!

শফিকুল আরো জানান, সারা বছর নিজ সন্তানের মত এদের লালন পালন করে বছরে ফাল্গুন-চৈত্র মাস আসলে সে সময় থেকে পাঁচ বার করে ৫ লক্ষাধিক টাকা আয় হতো এ থেকে। আর তখন মৌমাছির বাক্স ও বেড়ে শতাধিক দাঁড়ায়। আবহাওয়া ভাল থাকলে তখন লাভের পরিমাণও বেড়ে যায়।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর