কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


হাজী সিরাজ উদ্দিনের মৃত্যুতে ভৈরব আওয়ামী লীগের শোকসভা ও মিলাদ মাহফিল


 সোহেল সাশ্রু, ভৈরব | ৩১ আগস্ট ২০১৯, শনিবার, ৫:৩০ | ভৈরব 


ভৈরব উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মরহুম হাজী সিরাজ উদ্দিন স্মরণে শোকসভা ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার (৩০ আগস্ট) বিকালে উপজেলা ও পৌর আওয়ামী লীগের আয়োজনে ভৈরবপুর উত্তর পাড়া এমপি পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে এই শোক সভা ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. জাকির হোসেন কাজলের সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিসিবি সভাপতি ও কিশোরগঞ্জ-৬ (ভৈরব-কুলিয়ারচর) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব নাজমুল হাসান পাপন। এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কিশোরগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আফজাল হোসেন।

পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতিক আহম্মেদ সৌরভ এর সঞ্চালনায় অন্যান্য অতিথিদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, ভৈরব পৌর মেয়র বীরমুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট ফখরুল আলম আক্কাছ, উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সেন্টু, ভৈরব চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি সভাপতি আলহাজ্ব হুমায়ুন কবীর, উপজেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি অধ্যাপক শামসুজ্জামান বাচ্চু, অহিদ মিয়া, তালাওয়াত হোসেন বাবলা, রুহুল আমিন, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক জাহাঙ্গীর, পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি এসএম বাকী বিল্লাহ, সহ-সভাপতি হাজী সেলিম খান প্রমুখ।

প্রধান অতিথি বিসিবি সভাপতি আলহাজ্ব নাজমুল হাসান পাপন মরহুম সিরাজ উদ্দিনের স্মৃতি চারণ করে বলেন, হাজী সিরাজ উদ্দিনের মৃত্যুতে ভৈরব আওয়ামী লীগ হারিয়েছে একজন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব আর আমি হারিয়েছ পিতৃতুল্য একজন রাজনৈতিক অভিভাবক। উনার মৃত্যুতে ভৈরব আওয়ামী লীগের অপূরণীয় ক্ষতি হয়ে গেল। তিনি আরো বলেন, হাজী সিরাজ উদ্দিন একজন দক্ষ রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব ছিলেন, আমার বাবার সাথে উনি রাজনীতি করেছেন, তিনি ছিলেন একজন সদা হাস্যোজ্জ্বল সজ্জন ব্যক্তি। আমার কাছে ভৈরবের অনেক নেতা-কর্মী আসা যাওয়া করে। একজন নেতা আরেকজন নেতার গুণকীর্তন করেন আবার একে-অপরের খারাপও বলেছেন। কিন্তু মরহুম সিরাজ উদ্দিন একজন মাত্র ব্যক্তি যিনি সব সময় হাসি মুখে কথা বলতেন। তার বিরুদ্ধে কেউ আমার কাছে কিছুই বলেন নি। এমন কি তিনি আমার কাছে কারো বিরুদ্ধে বলেনি। এসময় তিনি মরহুমের শোকসন্তুপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

এছাড়াও অন্যান্য বক্তারা মরহুমের বর্ণাঢ্য কর্মময় ও রাজনৈতিক জীবনে দেশপ্রেম শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে তার অবদান মানুষের প্রতি তার ভালবাসার দিকগুলো তুলে ধরেন। মরহুম সিরাজ উদ্দিন রাজনীতির বাইরেও ভৈরবের বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন, মসজিদ, মাদ্রাসা, মাদকবিরোধী কর্মকাণ্ডসহ নানাবিধ কাজের সাথে জড়িত ছিলেন। আলোচনা শেষে মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া ভৈরব উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মো. সায়দুল্লাহ মিয়া অসুস্থ থাকায় তার জন্য দোয়া চাওয়া হয়। উল্লেখ্য, গত ২৩ আগস্ট বিকাল সাড়ে ৫টায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে হাজী সিরাজ উদ্দিন বাজিতপুর জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর