কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


শিক্ষার্থীদের টিফিনের টাকায় প্রতিবন্ধী শিশু শিক্ষার্থীরা পেলো অটোরিকশা


 স্টাফ রিপোর্টার | ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ২:৪৪ | বিশেষ সংবাদ 


বাজিতপুরের আফতাব উদ্দিন স্কুল এন্ড কলেজ এর শিক্ষার্থীদের টিফিনের টাকায় উপজেলার পিরিজপুর ইউনিয়নের গোথালিয়ায় প্রতিষ্ঠিত মৃত্তিকা প্রতিবন্ধী শিশু পাঠশালার প্রতিবন্ধী শিশু শিক্ষার্থীদের একটি অটোরিকশা দেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৫ সেপ্টেম্বর) আনুষ্ঠানিকভাবে প্রতিবন্ধী শিশুদের স্কুলে যাতায়াতে অটো গাড়ি ক্রয়ে ৭০ হাজার টাকা হস্তান্তর করা হয়। বাজিতপুর উপজেলার ভাগলপুরে আফতাব উদ্দিন স্কুল এন্ড কলেজ মিলনায়তনে প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে মৃত্তিকা প্রতিবন্ধী শিশু পাঠশালার শিক্ষার্থীদের কল্যাণে আর্থিক সাহায্য প্রদান উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা শিক্ষা অফিসার মো. জুলফিকার হোসেন। এতে সভাপতিত্ব করেন আফতাব উদ্দিন স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ সেলিনা আক্তার।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রতিষ্ঠানের গভর্নিং বডির সভাপতি আলহাজ্ব মো. মোস্তাফিজুর রহমান (মস্তু মিয়া), স্কুলের সহকারী প্রধান শিক্ষক মো. মশিউর রহমান, জেলা শিক্ষা গবেষণা কর্মকর্তা একেএম নাদিরুজ্জামান, জেলা সহকারী পরিদর্শক মো. আসাদুজ্জামান ও মো. তবারক হোসেন, বাজিতপুর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার শাহজাহান সিরাজ এবং উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার মো. মনিরুজ্জামান।

এতে আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের কার্যকরী পরিচালক মো. সামসুর রহমান, আফতাব বহুমুখী ফার্ম লিমিটেডের জেনারেল ম্যানেজার মো. মাহবুব এ খোদা চৌধুরী, মৃত্তিকা প্রতিবন্ধী ফাউন্ডেশন ও পাঠশালার প্রতিষ্ঠাতা মো. মাহবুবুর রহমান ভূঁইয়া এবং পাঠশালার শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে দেশখ্যাত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আফতাব উদ্দিন স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে প্রতিবন্ধী শিশুদের স্কুলে যাতায়াতে অটো গাড়ি ক্রয়ে ৭০ হাজার টাকা মৃত্তিকা প্রতিবন্ধী শিশু স্কুল ও ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ম. মাহবুবুর রহমান ভূঁইয়ার হাতে তুলে দেয়া হয়। এ সময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত দুই হাজারেরও বেশি শিক্ষার্থী করতালির মাধ্যমে কর্তৃপক্ষের এমন মহতী উদ্যোগকে সাধুবাদ জানান।

মৃত্তিকা প্রতিবন্ধী ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা মো. মাহবুবুর রহমান ভূঁইয়া উপস্থিত শিক্ষার্থীদের টিফিনের টাকা হতে এই শিক্ষা বঞ্চিত প্রতিবন্ধী শিশুদের কল্যাণে নগদ অর্থ প্রদান করার জন্য ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। তিনি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, তোমাদের এ সহায়তা দেশের সকল শিক্ষার্থীদের কাছে অনুকরণীয় হয়ে থাকবে। অনুষ্ঠানের শুরুতে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী মাহফুজুর রহমানের দেশাত্ববোধক গান ও বাক প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী আফছার এর ইশারা ভাষা প্রদর্শন সকলকে মুগ্ধ করে।

মৃত্তিকা প্রতিবন্ধী শিশু পাঠশালায় বর্তমানে ১৩৫ জন প্রতিবন্ধী শিশু পড়াশুনা করছে। ১৮ জন শিক্ষক ও কর্মকর্তা বিগত ৪ বছর ধরে স্বেচ্ছাশ্রমে কাজ করে যাচ্ছেন। পাঠশালাটি জেলার প্রতিবন্ধী শিশু স্কুলের মধ্যে একবার সেরা প্রতিষ্ঠানের স্বীকৃতি অর্জন করে।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর