কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


শুক্রবার এক সঙ্গে মুক্তি পাচ্ছে কাঞ্চন অভিনীত দুই সিনেমা ‘অবতার’ ও ‘মায়াবতী’


 স্টাফ রিপোর্টার | ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ১১:১৯ | বিনোদন 


শুক্রবার (১৩ সেপ্টেম্বর) এক সঙ্গে মুক্তি পাচ্ছে কিশোরগঞ্জের সম্ভাবনাময় তারকা আবুল হায়দার কাঞ্চন অভিনীত দু’টি সিনেমা। সিনেমা দু’টি হচ্ছে, মাহমুদ হাসান শিকদার পরিচালিত 'অবতার'’ ও অরুণ চৌধুরীর পরিচালিত ‘মায়াবতী’। ‘অবতার’ সিনেমাটিতে কেন্দ্রীয় দুইটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন চিত্রনায়ক আমিন খান ও চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। এতে মাহির বিপরীতে অভিনয় করেছেন নবাগত জে এইচ রুশো। আমিন খানের ছোট বোনের চরিত্রে মাহিকে দেখা যাবে। আরও রয়েছেন মিশা সওদাগর, রাইসুল ইসলাম আসাদ, শিবা সানু, সুব্রত, সুস্মিতা সিনহা, শিল্পী সরকার অপু ও মিলন ভট্ট সহ অনেকে।

অন্যদিকে ‘মায়াবতী’তে অভিনয় করেছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা ও ইয়াশ রোহান। এছাড়া আরো অভিনয় করেছেন ফজলুর রহমান বাবু, রাইসুল ইসলাম আসাদ, দিলারা জামান, মামুনুর রশীদ, নরেশ ভুঁইয়া, ওয়াহিদা মল্লিক জলি, আফরোজা বানু, অরুণা বিশ্বাস, আবদুল্লাহ রানা, তানভীর হোসেন প্রবাল, আগুন, মীমসহ অনেকে।

দু’টি সিনেমাতেই কমেডিয়ানের চরিত্রে দেখা যাবে কিশোরগঞ্জের ছেলে কাঞ্চনকে। সমসাময়িক সামাজিক সমস্যাকে উপজীব্য করে ‘অবতার’ নির্মিত হয়েছে। এ ছবিতে বেশ কয়েকটি দৃশ্যে কাঞ্চন তার কুশলী অভিনয়ের দ্যুতি ছড়িয়েছেন। অবতার এ তার চরিত্র ছোট হলেও দর্শক তার অভিনয় মনে রাখবে বলে বিশ্বাস কাঞ্চনের। একই দিন মুক্তি পেতে যাওয়া কাঞ্চনের আরেক চলচ্চিত্র ‘মায়াবতী’। সেখানেও কমেডিয়ানের চরিত্রে অভিনয় করেছেন কাঞ্চন। এই সিনেমায় কাঞ্চনকে একেবারেই অন্যরকম করে নিজেকে উপস্থাপন করেছেন।

এক সঙ্গে দু’টি সিনেমা মুক্তির ব্যাপারে আবুল হায়দার কাঞ্চন বলেন, এটি নিঃসন্দেহে এক রোমাঞ্চকর ব্যাপার। দু’টি সিনেমার গল্প এবং পরিবেশনা একেবারেই আলাদা। দু’টিতে দেশের নামকরা অভিনেতা-অভিনেত্রীরা কাজ করেছেন। তাদের সাথে কাজ করতে পারাটা নিঃসন্দেহে সৌভাগ্যের বিষয় এবং সুখকর অভিজ্ঞতা।

এ প্রসঙ্গে কাঞ্চন বলেন, অবতার সিনেমায় কাজ করতে গিয়ে আমাকে স্লিম হওয়ার জন্য ৫-৬ কেজি ওজন কমাতে হয়েছে। শুটিংয়ের আগে অন্তত তিন মাস ধরে হাতের নখ, চুল-দাড়ি না কেটে বড় করতে হয়েছে। চরিত্রের প্রয়োজনে এসব করতে গিয়ে শারীরিক পরিশ্রম ও ধকল গেলেও সেসব আনন্দচিত্তে করে গেছি।

কাঞ্চন আরো বলেন, দু’টি সিনেমার গল্পই দর্শকদের ভালো লাগবে। আশা করছি, দর্শক সিনেমা হলে গিয়ে হতাশ হবেন না। টিকিটের পয়সা কোনভাবেই তাদের বিফলে যাবে না।

আবুল হায়দার কাঞ্চনের জন্ম ১৯৯৩ সালের ১৩ ডিসেম্বর। কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার মহিনন্দ ইউনিয়নের কাশোরারচর গ্রামে জন্ম নেয়া এই তরুণ এখন বাংলাদেশের চলচ্চিত্র জগতের এক সম্ভাবনাময় তারকা। হালকা-পাতলা গড়নের কাঞ্চন ছোটবেলা থেকেই মানুষকে হাসাতে ভালবাসতেন। এরই মধ্যে তিনি পরিচিতি লাভ করেছেন একজন কমেডিয়ান হিসেবে। তবে তিনি কমেডিয়ানের বৃত্ত ভেঙ্গে একজন পূর্ণাঙ্গ অভিনেতা হয়ে ওঠতে চান কাঞ্চন। তার মেধা আর প্রতিভার স্ফূরণে রাঙাতে চান মানুষের মনোজগত।

২০১৭ সালে এনটিভির কমেডি রিয়েলিটি শো হাসো সিজন ৪-এ প্রতিযোগী হিসেবে নাম লেখান কাঞ্চন। শোটি চলার সময়েই অফার পান বিগ বাজেটের চলচ্চিত্র ‘অবতার’ এ কাজ করার। ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে ‘অবতার’ এর শুটিং শুরু হয়। অবতার এর শুটিং চলার এক পর্যায়ে ডাক আসে আরেকটি চলচ্চিত্রে কাজ করার। ‘মায়াবতী’ নামে এই চলচ্চিত্রটিতেও অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হন তিনি।

এখানেই থেমে থাকেননি কাঞ্চন। ‘অবতার’ ও ‘মায়াবতী’ এই দুইটি সিনেমায় কাজ করার ফাঁকেই অভিনয় করেন ইমপ্রেস টেলিফিল্ম এর ছবি ‘আলোয় ভুবন ভরা’ এবং খণ্ড নাটক ‘ভূজঙ্গী’ তে। ‘আলোয় ভুবন ভরা’ চলচ্চিত্রে, খণ্ড নাটক ‘ভূজঙ্গী’ তে কাঞ্চনের অভিনয় বেশ প্রশংসিত হয়। এর বাইরে নিজের আলোকিত উপস্থিত দিয়ে মাতিয়ে চলেছেন মঞ্চ।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর