কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


২০১৪-২০১৫ সালের জন্য কিশোরগঞ্জের যে পাঁচ গুণী সংস্কৃতিজন সম্মাননা পেলেন


 স্টাফ রিপোর্টার | ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শনিবার, ১২:২৯ | সংস্কৃতি 


কিশোরগঞ্জ জেলার বিগত পাঁচ বছরের গুণী সংস্কৃতিজনদের জেলা শিল্পকলা একাডেমি সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে। শুক্রবার (১৩ সেপ্টেম্বর) রাতে জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন এমপি। জেলা প্রশাসক মো. সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক, পুলিশ সুপার মো. মাশরুকুর রহমান খালেদ বিপিএম (বার), সিভিল সার্জন ডা. মো. হাবিবুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট কামরুল আহসান শাহজাহান ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এম এ আফজল।

অনুষ্ঠানে বিগত পাঁচ বছরের ২৬ গুণী সংস্কৃতিজনকে সম্মাননা প্রদান করা হয়। সম্মাননাপ্রাপ্ত ২৬ গুণী সংস্কৃতিজনের মধ্যে ২০১৪-২০১৫ সালের জন্য পাঁচটি ক্যাটাগরিতে পাঁচ গুণী সংস্কৃতিজনকে সম্মাননা প্রদান করা হয়। তারা হলেন, অমর চন্দ্র শীল, নারায়ণ দেব, সুধেন্দু বিশ্বাস, মো. আব্দুস সাত্তার এবং বাঁধন রায়।

অমর চন্দ্র শীল: ১৯৩০ সালে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার যশোদল ইউনিয়নের বীরদামপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন লোকসঙ্গীত শিল্পী অমর চন্দ্র শীল। শৈশব উত্তীর্ণ বয়স থেকে স্বশিক্ষিত এই লোকশিল্পী সঙ্গীতের দিকে ঝুঁকে পড়েন। গ্রামীণ জীবনের দুঃখ-বেদনা, আনন্দ-সুখ তাঁর শৈল্পিক জীবনকে প্রবলভাবে প্রভাবিত করে। যে কারণে লোকসঙ্গীতের প্রতিই তাঁর ছিল প্রবল ঝোঁক। তিনি লোকজ ঘরানার প্রচুর সঙ্গীত রচনা করেছেন। সে সকল সঙ্গীতে নিজেই সুরারোপ করে বিভিন্ন এলাকায় স্বকণ্ঠে সঙ্গীত পরিবেশন করে একজন জাত লোকশিল্পী হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেন। তিনি দীর্ঘদিন কিশোরগঞ্জ জেলা শিল্পকলা একাডেমির সঙ্গীত প্রশিক্ষক ছিলেন। তাঁর প্রশিক্ষণে কিশোরগঞ্জে অগণিত সঙ্গীত শিল্পী তৈরি হয়েছে। সে সকল শিল্পীদের অনেকেই আজ লব্ধ প্রতিষ্ঠিত শিল্পী হিসেবে পরিচিত।

২০১৪-২০১৫ সালে এই গুণী সঙ্গীতশিল্পীকে কণ্ঠসঙ্গীত ক্যাটাগরিতে ‘জেলা শিল্পকলা একাডেমি সম্মাননা’র জন্য মনোনীত করার পর গত ৪ জুন কিংবদন্তিতূল্য লোকসঙ্গীত শিল্পী ওস্তাদ অমর চন্দ্র শীল প্রায় ৯০ বছর বয়সে পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করেন। এই কীর্তিমান লোকসঙ্গীত শিল্পী জীবদ্দশায় সঙ্গীতের জগতে অসাধারণ অবদান রেখে যাওয়া কণ্ঠসঙ্গীত ক্যাটাগরিতে ২০১৪-২০১৫ সালের জন্য তাঁকে ‘জেলা শিল্পকলা একাডেমি সম্মাননা’য় ভূষিত করা হয়।

নারায়ণ দেব: নৃত্যশিল্পে অসাধারণ ধীশক্তি সম্পন্ন একজন প্রবীণ নৃত্য প্রশিক্ষক নারায়ণ কুমার দেব। স্থানীয়ভাবে তিনি নারায়ণ দেব নামে পরিচিত। ১৯৪৮ সালের ৮ আগস্ট কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার বগাদিয়া (করমূলী) গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন এই কীর্তিমান নৃত্য প্রশিক্ষক। নিতান্ত তরুণ বয়স থেকে তিনি নৃত্যশিল্পে সংযুক্ত হন। ১৯৭৫ সাল থেকে আজ অবধি তিনি কিশোরগঞ্জ জেলা শিল্পকলা একাডেমির উচ্চাঙ্গ নৃত্য প্রশিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তাঁর দ্বারা দীক্ষিত হয়ে কিশোরগঞ্জের অনেক নৃত্যশিল্পী জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে সুনাম অর্জন করেছেন। নৃত্যশিল্পী নারায়ণ দেব বিভিন্ন নৃত্যনাট্যে অভিনয়ের পাশাপাশি অনেক নৃত্যনাট্যে পরিচালক ও নির্দেশক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

নৃত্যশিল্পে বিশেষ অবদান রাখার স্বীকৃতি হিসেবে বিশিষ্ট নৃত্যশিল্পী ও নৃত্য প্রশিক্ষক নারায়ণ দেবকে ২০১৪-২০১৫ সালের জন্য নৃত্যকলা ক্যাটাগরিতে ‘জেলা শিল্পকলা একাডেমি সম্মাননা’য় ভূষিত করা হয়।

সুধেন্দু বিশ্বাস: স্থানীয় নাট্য আন্দোলনের ইতিহাসে এক পথিকৃৎ ব্যক্তিত্বের নাম সুধেন্দু বিশ্বাস। ১৯৪১ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি তাঁর জন্ম। মূল বাড়ি ইটনা উপজেলায় হলেও সুদীর্ঘকাল যাবৎ কিশোরগঞ্জ শহরের খরমপট্টি মহল্লার নিজস্ব বাড়িতে বসবাস করছেন। পেশায় তিনি ছিলেন কিশোরগঞ্জ শহরের ঐতিহ্যবাহী আজিম উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের কৃতী শিক্ষক। তদানীন্তন কিশোরগঞ্জ মহকুমার একমাত্র সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন ‘কল্লোল সমিতি’র তিনি ছিলেন প্রতিষ্ঠাতাদের একজন এই সংগঠন তৎসময়ে বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ডের পাশাপাশি কিশোরগঞ্জের নাট্য আন্দোলনেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে। প্রতি বছর নাটক মঞ্চায়নের মাধ্যমে স্থানীয় নাট্যামোদীদের আমোদিত করার পাশাপাশি নাট্য আন্দোলনকে জোরদার করার ক্ষেত্রে এ সংগঠন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে। সংগঠনের অন্যতম একজন কর্মী হিসেবে নাট্য পাগল সুধেন্দু বিশ্বাসের ভূমিকাও ছিল যথেষ্ঠ ফলপ্রসূ।

স্বাধীনতা-উত্তর সময়ে সুধেন্দু বিশ্বাস কিশোরগঞ্জের নাট্য আন্দোলনকে জোরদার করার ক্ষেত্রে জোরালো উদ্যোগ গ্রহণ করেন। স্থানীয় আর্টস কাউন্সিল হল (বর্তমানে জেলা শিল্পকলা একাডেমি) এক সময় তাঁর নির্দেশিত ও অভিনীত নাটকে মুখরিত থাকতো। এই গুণী নাট্য নির্দেশক ও নাট্যভিনেতাকে তাঁর অসাধারণ কৃতিত্ব ও অবদানের জন্য নাট্যকলা ক্যাটাগরিতে ২০১৪-২০১৫ সালের জন্য ‘জেলা শিল্পকলা একাডেমি সম্মাননা’য় ভূষিত করা হয়।

মো. আব্দুস সাত্তার: কৈশোর-উত্তীর্ণ প্রথম তারুণ্য থেকে নাটক ও যাত্রাশিল্পের প্রতি প্রবলভাবে আকৃষ্ট হন মো. আব্দুস সাত্তার। সেই থেকে আজ অব্দি এই শিল্পের সাথে আষ্টেপৃষ্ঠে জড়িয়ে রয়েছেন তিনি। আইনজীবী সহকারী হিসেবে পেশাগত জীবন পরিচালনার ফাঁকে ফাঁকে নিয়মিত যাত্রাপালায় অভিনয় করে আসছেন এই গুণী যাত্রাশিল্পী। তাঁর জন্ম ১৯৬৫ সালের ৩০ ডিসেম্বর। কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার মহিনন্দ ইউনিয়নের কাশোরারচর গ্রামে তাঁর পৈত্রিক বাড়ি। নাটক ও যাত্রাপালায় প্রায় সব ধরনের চরিত্রে অভিনয় করে তিনি দর্শকদের আগ্রহী দৃষ্টি কেড়ে নিয়েছেন। অসাধারণ অভিনয়শৈলী তাঁকে ভিন্ন মাত্রায় পৌঁছে দিয়েছে। মো. আব্দুস সাত্তার ১৯৮৫ সালে নিউ হারুন অপেরা নামক যাত্রা দলে দীর্ঘদিন পেশাদার অভিনেতা হিসেবে কাজ করেছেন। এ পর্যন্ত শতাধিক নাটক ও যাত্রাপালায় প্রায় পাঁচ শতাধিক প্রদর্শনীতে তিনি অভিনয় করেছেন।

যাত্রাশিল্পের এই কুশলী অভিনেতা নিজের অভিনয়-শৈলীর গুণে ব্যাপকভাবে দর্শকনন্দিত হয়েছেন। যাত্রার প্রতি গভীর অনুরাগ নিয়ে এখন পর্যন্ত এই শিল্পের সাথে নিজেকে জড়িয়ে রেখে যাত্রাশিল্পের উন্নয়নে নিরন্তর কাজ করে যাচ্ছেন। তাঁর এই সামগ্রিক অবদানের জন্য তাঁকে যাত্রাশিল্প ক্যাটাগরিতে ২০১৪-২০১৫ সালের জন্য ‘জেলা শিল্পকলা একাডেমি সম্মাননা’য় ভূষিত করা হয়।

বাঁধন রায়: কবিতাচর্চা ও কবিতার পরিশীলন নিয়ে যার যাবতীয় স্বপ্ন ও কর্মকাণ্ড আবর্তিত তিনি এ শহরের সুপরিচিত কবিতা-কর্মী ও আবৃত্তিকার বাঁধন রায়। ১৯৬৩ সালের ২১ অক্টোবর কিশোরগঞ্জ পৌর এলঅকার নগুয়া মহল্লা জন্মগ্রহণ করেন এই আবৃত্তিশিল্পী। আবৃত্তির পাশাপাশি তিনি একজন প্রতিশ্রুতিশীল কবি হিসেবেও সুপরিচিত। গত দশকের আশির দশক থেকে কবিতা চর্চার পাশাপাশি নিজেকে আবৃত্তিচর্চায় নিয়োজিত করেন। এছাড়া একজন উপস্থাপক হিসেবেও তাঁর পরিচিতি রয়েছে। আবৃত্তিশিল্পের বিকাশ ও প্রসারের লক্ষ্য নিয়ে তিনি ১৯৮৪ সালে আবৃত্তি সংগঠন ‘কারুবাক’ প্রতিষ্ঠা করেন।

আবৃত্তিশিল্পের বিকাশ ও উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখার স্বীকৃতি হিসেবে এই বাচিক শিল্পীকে ২০১৪-২০১৫ সালের জন্য আবৃত্তি ক্যাটাগরিতে ‘জেলা শিল্পকলা একাডেমি সম্মাননা’য় ভূষিত করা হয়।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর