কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কুলিয়ারচরে মাসব্যাপী কুটিরশিল্প ও বাণিজ্য মেলার উদ্বোধন


 মুহাম্মদ শাহ্ আলম, স্টাফ রিপোর্টার, কুলিয়ারচর | ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার, ৫:৫৯ | কুলিয়ারচর 


সকল জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর অবশেষে জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে কুলিয়ারচরে মাসব্যাপী কুটিরশিল্প ও বাণিজ্যমেলা প্রদর্শনী-২০১৯ এর উদ্বোধন হয়েছে। সোমবার (১৬ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় প্রধান অতিথি হিসেবে মাসব্যাপী কুটিরশিল্প ও বাণিজ্যমেলা প্রদর্শনী-২০১৯ এর উদ্বোধন করেন কিশোরগঞ্জ-৬ (ভৈরব-কুলিয়ারচর) আসনের সংসদ সদস্য ও বিসিবি সভাপতি আলহাজ্ব নাজমুল হাসান পাপন। কুলিয়ারচর থানা সংলগ্ন খেলার মাঠে কুলিয়ারচর শপিং কমপ্লেক্স এর আয়োজনে বেনারশি উইভার্স প্রাইভেট লিমিটেড এর সার্বিক ব্যবস্থাপনায় মাসব্যাপী এই কুটিরশিল্প ও বাণিজ্যমেলা প্রদর্শনী-২০১৯ এর আয়োজন করা হয়েছে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কুলিয়ারচর পৌর সভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ইমতিয়াজ বিন মুসা জিসান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুর্শিদ উদ্দিন আহমেদ, কুলিয়ারচর থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল হাই তালুকদার, বেনারশি উইভার্স প্রাইভেট লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাহমুদুল হাসান কুরেশী, পরিচালক লূৎফুর রহমান খান, শৈকত চৌধুরী, গোলাম রাব্বানী লিটন, মো. আশ্রাফুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জহির রায়হান জজ, মো. গিয়াস উদ্দিন, পৌর আওয়ামী লীগের আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আলাল উদ্দিন, আওয়ামী লীগ নেতা হাবিবুল্লাহ কামাল, কুলিয়ারচর বাজার ব্যবসায়ী পরিচালনা কমিটির সভাপতি মুফতী ইলিয়াস মাহমুদ কাসেমী রাসেল, পৌর কাউন্সিলর মো. মন্টু মিয়া, ঠিকাদার আনিসুজ্জামান সোহেল, উপজেলা যুবলীগের সাবেক আহবায়ক মো. এমরানুর রহমান এমরান প্রমুখসহ আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

মাসব্যাপী এই কুটিরশিল্প ও বাণিজ্যমেলা উপলক্ষ্যে ইতোমধ্যেই কুলিয়ারচর থানার মাঠকে বর্ণীল সাজে সজ্জিত করা হয়েছে। করা হয়েছে আলোকসজ্জা। মেলায় বিভিন্ন রকমের প্রায় ৬০ থেকে ৭০টি স্টল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। মেলায় অংশগ্রহণের জন্য দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে আগত ব্যবসায়ীরা স্টল বরাদ্দ নিয়ে তাদের পসরা সাজিয়ে বসেছেন।

রাজধানী ঢাকা থেকে চটপটি অ্যান্ড ফুসকা, কলা বাগানের মামা হালিম ও মো. হান্নান নামের এক ব্যবসায়ী লেদার এন্ড কসমেটিকস্ নিয়ে মেলায় এসেছেন। চাঁদপুর জেলার মতলব উপজেলা থেকে মো. আনোয়ার হোসেন কসমেটিকস্ ও খেলনা এবং নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলা থেকে বালাকুল নামের এক ব্যক্তি একদর ১৩০টাকা মূল্যের বিভিন্ন ধরনের পণ্য নিয়ে এসেছেন মেলায় বিক্রি করার জন্য। এমনিভাবে দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে রকমারি পণ্য নিয়ে ব্যবসায়ীরা মেলায় অংশগ্রহণ করছেন।

মেলার প্রবেশ পথকে বর্ণীল ফেস্টুন দিয়ে সাজানো হয়েছে। মেলার উত্তর পূর্ব দিকে অস্থায়ী মঞ্চ এবং উত্তর পশ্চিম দিকে দি কিং স্টার সার্কাস। বাণিজ্য মেলার মাঝে রয়েছে টাওয়ার, পানির ফোয়ারা, আর টাওয়ারকে ঘিরে ছোট রেললাইন ও রেল গাড়ি।

মেলাটি সম্পূর্ণ সিসি ক্যামেরা দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হবে। সাদা পোশাকের পুলিশি নজরদারির কথাও রয়েছে। মেলা উদ্বোধনের আগেই স্থানীয় ক্রেতা ও দর্শনার্থীরা ভীড় জমাতে শুরু করেছিলেন। মেলা আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধনের পর এবার ক্রেতা ও দর্শনার্থীরা ভীড় আরো বাড়বে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর