kishoreganjnews.com:কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা

প্রেমের অভিনয়ে চাঁদাবাজি, তরুণ উদ্ধার, নারীসহ গ্রেপ্তার ৬


 স্টাফ রিপোর্টার | ১ মার্চ ২০১৮, বৃহস্পতিবার, ৯:৪২ | অপরাধ 


কিশোরগঞ্জে প্রেমের অভিনয়ে চাঁদাবাজির ঘটনায় পুলিশ কৌশলে দুই নারীসহ ৬ আসামীকে আটক করে কারাগারে পাঠিয়েছে। উদ্ধার করেছে চাঁদাবাজির টাকাসহ এক ভিকটিমকে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, শহরের গাইটাল শ্রীনগর এলাকার আব্দুল জলিলের মেয়ে জ্যোতি ওরফে স্বপ্না (২১) আনুমানিক ২০ দিন আগে নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলার কুতুবপুর গ্রামের মৃত আনসার উদ্দিনের ছেলে সিদ্দিকুর রহমান শহীনের (২৫) মোবাইলে ফোন করে প্রেমের প্রস্তাব দেয়। শাহীনও প্রস্তাবে সাড়া দেয়। স্বপ্নাকে সহায়তা করেন শাহীনের গ্রামের দূর সম্পর্কের চাচা আলমগীর হায়দার।

গত ২৭ ফেব্রুয়ারি শাহীন কিশোরগঞ্জ শহরে আসলে বিকাল ৪টার দিকে স্বপ্না তাকে ফোন করে সদর উপজেলার বৌলাই এলাকায় যেতে বলে। শাহীন সেখানে গেলে তাকে বৌলাই দক্ষিণ রাজকুন্তি গ্রামের মোন্তাজ উদ্দিনের ছেলে জুয়েলের (৩৫) বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর শাহীনকে ঘরে আটকে রেখে জুয়েল ও তার সহযোগীরা ৩ লাখ টাকা চাঁদা দেয়ার জন্য শাহীনের ওপর নির্যাতন শুরু করে। অন্যথায় খুন করার হুমকি দেয়। এসময় শাহীন তার খালাত ভাই আনিছুলকে (৩৩) ফোন করলে শাহীনের ভাবীর কাছ থেকে দেড় লাখ টাকা নিয়ে দুর্বৃত্তদের দেয়া হয়। কিন্তু তাকে মুক্তি না দিয়ে বাকি দেড় লাখ টাকার জন্য আবার নির্যাতন চালানো হয়। শাহীন খালাত ভাইকে আরো দেড় লাখ টাকা দেয়ার জন্য অনুরোধ করেন।

এরপর শাহীনের খালাত ভাই আনিছুল বুধবার কিশোরগঞ্জ সদর থানায় গিয়ে ঘটনা জানালে পুলিশও দুর্বৃত্তদের ধরার পরিকল্পনা করে। দুর্বৃত্তরা শহরের ইসলামিয়া সুপার মার্কেটের সামনে বিকালে টাকা গ্রহণ করবে বলে জানায়। সেখানে ছদ্মবেশে পুলিশও হাজির থাকে। আলমগীর এর স্ত্রী শহরের পুরানথানা এলাকার বাসিন্দা নাসরিন (২৮) টাকা গ্রহণ করতে গেলে তাকে পুলিশ ধরে ফেলে।

পরে পুলিশ ফোর্সসহ নাসরিনকে নিয়ে এসআই মাসুদ, এসআই নজরুল ও এসআই মারুফ দক্ষিণ রাজকুন্তি গ্রামে জুয়েলের বাড়িতে রাত ৮টার দিকে অভিযান চালিয়ে ভিকটিম শাহীনকে উদ্ধার করে। এসময় জুয়েল (৩৫), সদর উপজেলার স্বল্প যশোদল ভাবুন্দিয়া গ্রামের মৃত মাহতাব উদ্দিনের ছেলে মুগল-এ আযম (৪৫), সদর উপজেলার চিকনিরচর মধ্যপাড়া গ্রামের চান মিয়ার ছেলে শফিকুল ইসলাম (২৫), নেত্রকোনার কেন্দুয়ার কুতুবপুর গ্রামের মিজানুর রহমানের ছেলে আলমগীর হায়দার (২৬), তার স্ত্রী নাসরিন (২৮) ও প্রেমের অভিনয়কারী জ্যোতি ওরফে স্বপ্নাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়। তাদের কাছ থেকে মুক্তিপণ হিসেবে আদায় করা দেড় টাকার মধ্যে এক লাখ ১৫ হাজার টাকাও উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় ভিকটিম সিদ্দিকুর রহমান শাহীন বাদী হয়ে আটককৃত ৬ জনের বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার সদর থানায় মামলা করলে সন্ধ্যায় ৬ আসামীকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। পুলিশ জানায়, স্বপ্না পেশাদার অপরাধী। সে ওই দুর্বৃত্ত চক্রের সদস্য। তাকে দিয়ে প্রেমের জাল ফেলে যুবকদের আটক করে চক্রটি টাকা আদায় করে আসছিল। এদের কয়েকজনের বিরুদ্ধে আগেও মামলা হয়েছে।



[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর



















সেগুনবাগিচা, গৌরাঙ্গবাজার, কিশোরগঞ্জ-২৩০০
মোবাইল:০ ১৮১৯ ৮৯১০৮৮
kishoreganjnews247@gmail.com
Web: www. kishoreganjnews.com
প্রধান সম্পাদক: আশরাফুল ইসলাম
সম্পাদক: সিম্মী আহাম্মেদ