কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কাঞ্চনের নিজশহর কিশোরগঞ্জে শুক্রবার থেকে চলবে ‘অবতার’


 স্টাফ রিপোর্টার | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ২:০৬ | বিনোদন 


গত ১৩ সেপ্টেম্বর এক সঙ্গে মুক্তি পায় কিশোরগঞ্জের সম্ভাবনাময় তারকা আবুল হায়দার কাঞ্চন অভিনীতি দু’টি সিনেমা ‘অবতার’ ও ‘মায়াবতী’। মাহমুদ হাসান শিকদার পরিচালিত ‘অবতার’ এবং অরুণ চৌধুরী পরিচালিত ‘মায়াবতী’ সিনেমা দু’টিই মুক্তির প্রথম দিন থেকেই সাড়া জাগিয়েছে। কিন্তু মুক্তির প্রথম সপ্তাহে দু’টি সিনেমার কোনোটিই কাঞ্চনের নিজশহর কিশোরগঞ্জের কোন সিনেমা হলে চলেনি। ফলে কিশোরগঞ্জের মানুষ তাদের প্রিয় কাঞ্চনের অভিনীত সিনেমা দেখা থেকে বঞ্চিত ছিল। এ নিয়ে অনেককে আফসোস করতেও দেখা গেছে।

তবে কাঞ্চনভক্তদের জন্য জন্য সুখবর হচ্ছে, কাঞ্চন অভিনীতি দু’টি সিনেমার মধ্যে ‘অবতার’ তার নিজশহরের সিনেমা হলেই এখন দেখা যাবে। শুক্রবার (২০ সেপ্টেম্বর) থেকে শহরের রথখলা এলাকার ‘মানসী’ সিনেমা হলে ছবিটি প্রদর্শিত হবে।

এ নিয়ে বেশ রোমাঞ্চিত কাঞ্চন নিজেও। নিজের ফেসবুক আইডি থেকেই বৃহস্পতিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) এই সুখবরটি দিয়েছেন তিনি। মানসী সিনেমা হলে সাঁটানো ‘অবতার’ সিনেমার পোস্টারের সামনে দাঁড়িয়ে সেলফি তুলে সেটি ছেড়েছেন তার ফেসবুক আইডিতে।

সেখানে কাঞ্চন লিখেছেন, ‘আগামী কাল শুক্রবার থেকে কিশোরগঞ্জ মানসী হলে চলবে "অবতার"। অনেক অপেক্ষায় ছিলাম "অবতার"কে নিয়ে। আশা করি আপনারা হলে গিয়ে অবতার সিনেমাটি দেখবেন।’

‘অবতার’ সিনেমাটিতে কেন্দ্রীয় দুইটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন চিত্রনায়ক আমিন খান ও চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। এতে মাহির বিপরীতে অভিনয় করেছেন নবাগত জে এইচ রুশো। আমিন খানের ছোট বোনের চরিত্রে মাহিকে দেখা যাবে। আরও রয়েছেন মিশা সওদাগর, রাইসুল ইসলাম আসাদ, শিবা সানু, সুব্রত, সুস্মিতা সিনহা, শিল্পী সরকার অপু ও মিলন ভট্ট সহ অনেকে।

সমসাময়িক সামাজিক সমস্যাকে উপজীব্য করে ‘অবতার’ নির্মিত হয়েছে। এ ছবিতে বেশ কয়েকটি দৃশ্যে কাঞ্চন তার কুশলী অভিনয়ের দ্যুতি ছড়িয়েছেন। অবতার এ তার চরিত্র ছোট হলেও দর্শক তার অভিনয় মনে রাখবে বলে বিশ্বাস কাঞ্চনের।

এ প্রসঙ্গে কাঞ্চন বলেন, অবতার সিনেমায় কাজ করতে গিয়ে আমাকে স্লিম হওয়ার জন্য ৫-৬ কেজি ওজন কমাতে হয়েছে। শুটিংয়ের আগে অন্তত তিন মাস ধরে হাতের নখ, চুল-দাড়ি না কেটে বড় করতে হয়েছে। চরিত্রের প্রয়োজনে এসব করতে গিয়ে শারীরিক পরিশ্রম ও ধকল গেলেও সেসব আনন্দচিত্তে করে গেছি।

কাঞ্চন আরো বলেন, ‘অবতার’ সিনেমার গল্প দর্শকদের ভালো লাগবে। আশা করছি, দর্শক সিনেমা হলে গিয়ে হতাশ হবেন না। টিকিটের পয়সা কোনভাবেই তাদের বিফলে যাবে না।

আবুল হায়দার কাঞ্চনের জন্ম ১৯৯৩ সালের ১৩ ডিসেম্বর। কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার মহিনন্দ ইউনিয়নের কাশোরারচর গ্রামে জন্ম নেয়া এই তরুণ এখন বাংলাদেশের চলচ্চিত্র জগতের এক সম্ভাবনাময় তারকা। হালকা-পাতলা গড়নের কাঞ্চন ছোটবেলা থেকেই মানুষকে হাসাতে ভালবাসতেন। এরই মধ্যে তিনি পরিচিতি লাভ করেছেন একজন কমেডিয়ান হিসেবে। তবে তিনি কমেডিয়ানের বৃত্ত ভেঙ্গে একজন পূর্ণাঙ্গ অভিনেতা হয়ে ওঠতে চান কাঞ্চন। তার মেধা আর প্রতিভার স্ফূরণে রাঙাতে চান মানুষের মনোজগত।

২০১৭ সালে এনটিভির কমেডি রিয়েলিটি শো হাসো সিজন ৪-এ প্রতিযোগী হিসেবে নাম লেখান কাঞ্চন। শোটি চলার সময়েই অফার পান বিগ বাজেটের চলচ্চিত্র ‘অবতার’ এ কাজ করার। ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে ‘অবতার’ এর শুটিং শুরু হয়। অবতার এর শুটিং চলার এক পর্যায়ে ডাক আসে আরেকটি চলচ্চিত্রে কাজ করার। ‘মায়াবতী’ নামে এই চলচ্চিত্রটিতেও অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হন তিনি।

এখানেই থেমে থাকেননি কাঞ্চন। ‘অবতার’ ও ‘মায়াবতী’ এই দুইটি সিনেমায় কাজ করার ফাঁকেই অভিনয় করেন ইমপ্রেস টেলিফিল্ম এর ছবি ‘আলোয় ভুবন ভরা’ এবং খণ্ড নাটক ‘ভূজঙ্গী’ তে। ‘আলোয় ভুবন ভরা’ চলচ্চিত্রে, খণ্ড নাটক ‘ভূজঙ্গী’ তে কাঞ্চনের অভিনয় বেশ প্রশংসিত হয়। এর বাইরে নিজের আলোকিত উপস্থিত দিয়ে মাতিয়ে চলেছেন মঞ্চ।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর