কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


উপজেলা চাই কিশোরগঞ্জের 'আব্দুল্লাপুর'


 মো. শাহ আলম সরকার | ১ অক্টোবর ২০১৯, মঙ্গলবার, ৮:৩০ | মত-দ্বিমত 


বিশ্বায়নের যুগে মানুষের সুযোগ-সুবিধা প্রাপ্তি সহজতর হয়ে গেছে। কিন্ত এই সোনার বাংলায় এখনো সুবিধা বঞ্চিত মানুষের হাহাকারও রয়েছে। আমি আজ এমনই এক জনপদের কথা বলছি, যেখানে আজ মানুষের মৌলিক ও স্পর্শকাতর অনেক বিষয়ের চাহিদার অভাব প্রকট আকার ধারণ করেছে।

কিশোরগঞ্জ জেলার অষ্টগ্রাম উপজেলার আব্দুল্লাহপুর, আদমপুর এবং কলমা ইউনিয়নগুলো অষ্টগ্রাম সদর তথা আশেপাশের উপজেলা থেকে বিছিন্ন। এমন যোগাযোগ বিছিন্ন জনপদ এ দেশে বিরল। আব্দুল্লাহপুর গ্রামটি হাওরের নাভী অর্থাৎ খাল বিল নদী তথা চরাঞ্চলের মধ্যভাগ,  মুক্তিযুদ্ধে গ্রামটির বিশেষ ভূমিকা, শিক্ষায় অগ্রসরতা তথা তিন হাজার প্রবাসীর মাতৃভূমি, রাজনীতি সচেতন তদূপরি ত্রিশ হাজার লোকের একক গ্রাম হওয়ায় অত্র অঞ্চলে এ গ্রামের সুনাম, খ্যাতি ও গুরুত্ব সর্বত্র।

অষ্টগ্রাম উপজেলার সর্ববৃহৎ ইউনিয়ন ও গ্রাম আব্দুল্লাপুর অনেক ক্ষেত্রে এগিয়ে থাকলেও চিকিৎসা, যোগাযোগ তথা বিকেন্দ্রীকরণের অভাবে মানুষ ধুঁকছে বহুদিন ধরে। যা বর্ণনা করলে কেউ বিশ্বাস করতে চাইবে না। তাই মহামান্য রাষ্ট্রপ্রধানের অত্যন্ত বিশ্বস্থ ঠিকানা আব্দুল্লাপুর অত্র এলাকার মধ্যভাগ এবং মাদ্রাসা, স্কুল, কলেজ, পোষ্ট অফিসসহ অবকাঠামো তৈরি স্থান হওয়ায় অনতিবিলম্বে আব্দুল্লাপুরকে কেন্দ্র করে পার্শ্ববর্তী ইউনিয়ন নিয়ে আলাদা উপজেলা গঠন এই জনপদের মানুষের প্রাণের দাবি।

তাই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের স্থান ও বিষয়াবলী পরীক্ষা করতঃ ব্যবস্থা গ্রহণে জোর দাবি জানাচ্ছি। সেই সাথে দেশের মহামান্য রাষ্ট্রপতির আশু কার্যকরি পদক্ষেপ প্রার্থনা করছি।

শিক্ষা, চিকিৎসা, প্রশাসনিক সেবা পাওয়া সবকিছুতেই এলাকাটি দুর্গম হওয়ায় বঞ্চিত মানুষ ভুগছে বহুকাল ধরে। কোন উচ্চাকাঙ্খা থেকে নয়; বিভিন্ন সময়ে মানবিকতার বিপর্যয়ে বিপর্যস্ত এলাকাটিকে অবশ্যই উপজেলা ঘোষণা সময়ের দাবি। এতে জয় হবে বঞ্চিত মানুষের। সেই সাথে রাষ্ট্রীয় বিকেন্দ্রীকরণেরও প্রসার ঘটবে।

# মো. শাহ আলম সরকার, সহকারী শিক্ষক (মাধ্যমিক), গ্রাম: আব্দুল্লাপুর, অষ্টগ্রাম, কিশোরগঞ্জ।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর