কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


নীলগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মা সমাবেশ


 স্টাফ রিপোর্টার | ৩ অক্টোবর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৫:৩০ | কিশোরগঞ্জ সদর 


মানসম্মত প্রাথমিক শিক্ষা নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার নীলগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মা সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৩ অক্টোবর) দুপুরে বিদ্যালয় মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এই মা সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সুব্রত কুমার বণিক।

বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদ সভাপতি মো. আবুল কালাম আজাদ তারু এর সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সহকারী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মাহবুব জামান, সদর উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা এনামুল হক খান, সহকারী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. জহিরুল ইসলাম, মো. এমদাদুল হক, মো. শহীদুল ইসলাম ভূঁইয়া স্বপন, ইউপি চেয়ারম্যান মো. রোকন উদ্দিন প্রমুখ। অনুষ্ঠানে সকল অতিথিদের ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় শিক্ষক বান্ধব জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সুব্রত কুমার বণিক বলেন, সন্তান অমূল্য সম্পদ। যে কোন বিপদে-আপদে তারা সৃষ্টি কর্তার পরেই বাবার আগে মায়ের কথা স্মরণ করে। এক সময় আমরা পৃথিবীতে থাকবো না আমাদের পরিসমাপ্তি ঘটবে তখন এ আসনগুলি তারাই অলংকৃত করেব। এজন্য সন্তানদের বিশেষ নজর দিতে হবে।

তিনি বলেন, শিক্ষকরা যদি অভিভাবকের আর অভিভাবকরা যদি শিক্ষকের ভূমিকা রেখে একে অপরের কাজ করেন তবে আমাদের শিশুরা কখনোই পিছিয়ে পড়বে না। আজকের শিশুরাই আগামী দিনের উন্নত রাষ্ট্র গঠনের সৈনিক। বর্তমান জনবান্ধব সরকার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থীদের শতভাগ উপবৃত্তি দিচ্ছে আর সামনের নতুন বছর থেকে প্রতিটি শিক্ষার্থীদের দুপুরের খাবার দিবে যাতে শিশুরা দুপুরে বাড়িতে না যায়।

সহকারী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মাহবুব জামান বলেন, আজকের শিশুরা যদি মানুষের মতো মানুষ হিসেবে গড়ে উঠে তাহলে তারা আগামী দিনে দেশের যোগ্য নাগরিক হিসেবে পরিচিতি লাভ করবে এবং প্রতিটি শিশু এক একটি হিরার টুকরা হবে।

তিনি বলেন, বর্তমান সরকার ২০৪১ সালে এ দেশকে একটি উন্নত ও সমৃদ্ধশালী দেশ হিসেবে গড়ে তোলবে। আর এজন্য দেশের প্রতিটি নাগরিককে সুশিক্ষা লাভ করতে হবে। এক্ষেত্রে আমাদের সকলকে শক্ত হাতে হাল ধরতে হবে তাহলেই প্রধানমন্ত্রী ও বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়িত হবে।

উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা এনামুল হক খান উপস্থিত মায়েদের উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনারা কেউ শিশুদের বাইরের খাবার দেবেন না। কারণ বাইরের বেশির ভাগ খাবারই দূষিত। তাই শিশুদের মায়ের হাতের রান্না করা ঘরে খাবার দিতে হবে, তবে শিশুরা সুস্থ থাকবে। এ সময় তিনি প্রতিটি শিশুকে প্রতিদিন স্কুলে পাঠানোর জন্য উপস্থিত মায়েদের প্রতিজ্ঞা করান।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে ছিলেন বিদ্যালয়ের পিটিএ সভাপতি একেএম আহসান উল্লাহ হেলাল, স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা মো. সাখাওয়াত হোসেন সোহেল প্রমূখ। সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন প্রধান শিক্ষক বদরুন্নেছা বীনা।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর