কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


বাজিতপুরে পিকআপ ভর্তি ১২ কেজি গাঁজার চালানসহ আটক দুই


 স্টাফ রিপোর্টার | ২৪ অক্টোবর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ২:১৮ | অপরাধ 


বাজিতপুরে পিকআপে করে গাঁজার চালান পাচারের সময় ১২ কেজি গাঁজা এবং গাঁজা পরিবহনকারী পিকআপসহ দুইজনকে আটক করেছে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। বৃহস্পতিবার (২৪ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে র‌্যাব-১৪, সিপিসি-২, কিশোরগঞ্জ ক্যাম্পের সদস্যরা ভৈরব-কিশোরগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কে বাজিতপুর উপজেলার পিরিজপুর বাজার এলাকায় চেক পোস্ট স্থাপন করে পিকআপভর্তি ১২ কেজি গাঁজার চালানসহ তাদের আটক করেন।

আটক হওয়া ব্যক্তিরা হলো, মো. আহলাদ মিয়া (৪০) ও মো. জুলহাস (২০)। তাদের মধ্যে মো. আহলাদ মিয়া নেত্রকোনা জেলার বারহাট্টা থানার দশধার গ্রামের লালু হোসেনের ছেলে এবং মো. জুলহাস একই গ্রামের মো. ইছব আলীর ছেলে।

র‌্যাব-১৪, সিপিসি-২, কিশোরগঞ্জ ক্যাম্পের কোম্পানী অধিনায়ক লে. কমান্ডার, বিএন এম শোভন খান জানান, মাদককে নির্মূলের ক্ষেত্রে কিশোরগঞ্জ র‌্যাব নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তারা জানতে পারেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে ভৈরব ও কিশোরগঞ্জ হয়ে নেত্রকোণা এবং ময়মনসিংহ এলাকায় কিছু মাদক ব্যবসায়ী বিভিন্ন সময় মাদকদ্রব্য পাচার করে আসছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে ভৈরব-কিশোরগঞ্জ-ময়মনসিংহ মহাসড়কে র‌্যাবের গোয়েন্দা নজরদারির পাশাপাশি র‌্যাব টহল জোরদার করা হয়।

এরই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার (২৪ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে র‌্যাব-১৪, সিপিসি-২, কিশোরগঞ্জ ক্যাম্পের সদস্যরা ভৈরব-কিশোরগঞ্জ মহাসড়কে বাজিতপুর উপজেলার পিরিজপুর বাজার এলাকায় চেক পোস্ট স্থাপন করেন।

চেক পোস্ট পরিচালনা করার সময় একটি পিকআপের গতিবিধি সন্দেহজনক হলে পিকআপটি তল্লাসি করে ১২ কেজি গাঁজাসহ মো. আহলাদ মিয়া ও মো. জুলহাস নামের দুই মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়।

র‌্যাবের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃতরা মাদক ক্রয়-বিক্রয় এর সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে। এ ঘটনায় আটককৃত দুই মাদক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে ২০১৮ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে বাজিতপুর থানায় মামলা দায়ের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর