kishoreganjnews.com:কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা

ট্রেজারি অডিটর সৈয়দুজ্জামানের বাসায় ১১৪ বান্ডেলে ৯২ লাখ টাকা



 বিশেষ প্রতিনিধি | ৭ মার্চ ২০১৮, বুধবার, ৫:৩৫ | অপরাধ 


কিশোরগঞ্জে ভূমি অধিগ্রহণের পাঁচ কোটি টাকা আত্মসাতের মামলায় কারাগারে থাকা ট্রেজারির অডিটর মো. সৈয়দুজ্জামানের বাসা থেকে ৯২ লাখ টাকা উদ্ধার করেছে দুদক। মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার কাতিয়ারচর এলাকায় ট্রেজারির অডিটর মো. সৈয়দুজ্জামানের বাসায় দুদক ঢাকা বিভাগের পরিচালক নাসিম আনোয়ার, সহকারি পরিচালক মো. আব্দুল ওয়াদুদ, মো. মনিরুল ইসলাম ও মো. ফজলুল বারী হানা দিয়ে এসব টাকা উদ্ধার করেন।

সৈয়দুজ্জামানের শোবার ঘরে স্টিলের আলমারির ওপরে দুটি ব্যাগে তিনটি কাগজের প্যাকেটে রাখা এক হাজার ও ৫শ’ টাকার ১১৪টি বান্ডেলে এই টাকা উদ্ধার করা হয়। এর মধ্যে এক হাজার টাকার বান্ডেল রয়েছে ৭০টি, আর ৫শ’ টাকার বান্ডেল রয়েছে ৪৪টি। টাকা গোণা এবং প্যাকেট করাসহ রাত সোয়া ১টা পর্যন্ত চলে এ অভিযান।

অভিযানে নেতৃত্ব দেয়া দুদক ঢাকা বিভাগের পরিচালক নাসিম আনোয়ার জানান, পাঁচ কোটি টাকা অর্থ আত্মসাতে মূল অভিযুক্ত কিশোরগঞ্জের গ্রেপ্তারকৃত সাবেক ভুমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা সেতাফুল ইসলামের ১৬৪ ধারার জবানবন্দির সূত্র ধরে এই অভিযান চালানো হয়।

এসময় সিনিয়র নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবু তাহের মো. সাঈদ, কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি আবু শামা মো. ইকবাল হায়াত ও পরিদর্শক (অপারেশন) তানভীর আহমেদসহ অন্যান্য পুলিশ সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

পাঁচ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় গত ১৭ই জানুয়ারি পিরোজপুর থেকে ভুমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা সেতাফুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করে দুদক। পরে ২রা ফেব্রুয়ারি আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন সেতাফুল ইসলাম। জবানবন্দিতে ভূমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা মো. সেতাফুল ইসলাম পাঁচ কোটি টাকা আত্মসাতে তার সঙ্গে কিশোরগঞ্জের বিদায়ী জেলা প্রশাসক মো. আজিমুদ্দিন বিশ্বাস, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) দুলাল চন্দ্র সূত্রধর এবং অতিরিক্ত ভূমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা মাঈনুল হক জড়িত ছাড়াও আত্মসাতের টাকার অংশ হিসেবে ট্রেজারির অডিটর মো. সৈয়দুজ্জামানকে পাঁচ লাখ ও পিয়ন মো. দুলাল মিয়াকে এক লাখ টাকা দিয়েছেন বলে জানিয়েছিলেন।

এই জবানবন্দির সূত্র ধরে ঢাকার প্রধান কার্যালয় থেকে আসা দুদকের একটি উচ্চ পর্যায়ের টিম কাগজপত্র পরীাসহ ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে মো. সৈয়দুজ্জামান ও দুলাল মিয়ার জড়িত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত হয় এবং গত ৬ই ফেব্রুয়ারি অডিটর সৈয়দুজ্জামান ও পিয়ন দুলাল মিয়াকেও দুদক গ্রেপ্তার করে। পরে গত ১১ই ফেব্রুয়ারি ট্রেজারির অডিটর মো. সৈয়দুজ্জামান ও অফিস সহায়ক দুলাল মিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিন দিনের রিমান্ডে নেয়া হয়। রিমান্ড শেষে ১৪ই ফেব্রুয়ারি দু’জনেই আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়ার পর তাদের কারাগারে পাঠানো হয়।

দুদক সূত্র জানিয়েছে, ভূমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা মো. সেতাফুল ইসলাম ও ট্রেজারির অডিটর মো. সৈয়দুজ্জামান উভয়েই মাদকাসক্ত ছিলেন। তারা একসঙ্গে মাদকগ্রহণসহ পরস্পরের বাসায় যাতায়াত ছিল। এই ঘনিষ্ঠতার কারণেই আত্মসাতের একটি অংশ ট্রেজারির অডিটর মো. সৈয়দুজ্জামানের বাসায় রাখা হয়। মঙ্গলবার রাতে সেখানে দুদকদল হানা দিয়ে দুইটি বাজারের ব্যাগে রাখা মোট ৯২ লাখ টাকা উদ্ধার করে।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর



















সেগুনবাগিচা, গৌরাঙ্গবাজার, কিশোরগঞ্জ-২৩০০
মোবাইল:০ ১৮১৯ ৮৯১০৮৮
kishoreganjnews247@gmail.com
Web: www. kishoreganjnews.com
প্রধান সম্পাদক: আশরাফুল ইসলাম
সম্পাদক: সিম্মী আহাম্মেদ