কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


ভৈরবে লিফলেট বিতরণ ও অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ


 সোহেল সাশ্রু, ভৈরব | ৩১ অক্টোবর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ১১:৪৯ | ভৈরব 


জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস উপলক্ষে মাসব্যাপী কর্মসূচীর সমাপনী দিনে ভৈরব বাসস্ট্যান্ডে লিফলেট বিতরণ ও অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ভৈরব বাসস্ট্যান্ড এলাকায় সড়ক ও জনপথের অভিযানে ফুটপাত দখল করে গড়ে ওঠা কয়েক শতাধিক অবৈধ টিকেট কাউন্টারসহ কয়েকশ’ দোকান পাট উচ্ছেদ করা হয়েছে।

মহাসড়কের উপর বাস দাঁড় করিয়ে যাত্রী উঠানামা বন্ধ এবং যাত্রীদের নিরাপদ যাতায়াতকে নিশ্চিত করতে বৃহস্পতিবার (৩১ অক্টোবর) দুপুরে এ অভিযান চালায় ভৈরব সড়ক ও জনপথ বিভাগ ও ভৈরব উপজেলা প্রশাসন।

ভৈরব থানা ও হাইওয়ে পুলিশের সহায়তায় এ অভিযানেরর নেতৃত্ব দেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট লুবনা ফারজানা।

এ সময় ভৈরব পৌরসভার মেয়র বীরমুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট ফখরুল আলম আক্কাছ, কিশোরগঞ্জ জেলা পরিষদ প্যানেল চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা মির্জা মো. সোলায়মান, উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সেন্টু, নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোনের ভৈরব শাখা সভাপতি এসএম বাকী বিল্লাহ, সাধারণ সম্পাদক মো. আলাল উদ্দিন, কিশোরগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মাহমুদ সালেহীন, উপ-সহকারী প্রকৌশলী তাহের উদ্দিনসহ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে সকালে বাসস্ট্যান্ড দুর্জয় চত্ত্বর এলাকায় নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের মাসব্যাপী কর্মসূচীর সমাপনী দিনে আলোচনা ও সড়ক গণসচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ করা হয়।

সংগঠনের সভাপতি এসএম বাকী বিল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মো. সায়দুল্লাহ মিয়া।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, ভৈরব উপজেলা নির্বাহী অফিসার লুবনা ফারজানা, ভৈরব পৌরসভার মেয়র বীরমুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট ফখরুল আলম আক্কাছ, কিশোরগঞ্জ জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা মির্জা মো. সোলায়মান, উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সেন্টু, ভৈরব প্রেসক্লাবের সভাপতি মো. জাকির হোসেন কাজল, ভৈরব রিপোর্টার্স ক্লাব ও ইউনিটি সভাপতি মো. তাজুল ইসলাম তাজ ভৈরবী, পৌর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আতিক আহমেদ সৌরভ, হাইওয়ে থানা অফিসার ইনচার্জ মামুন রহমান প্রমুখ।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন নিরাপদ সড়ক চাই ভৈরব শাখার সাধারণ সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় কার্যকরী সদস্য মো. আলাল উদ্দিন।

অতিথিরা তাদের আলোচনায় বলেন, ভৈরবের সকল সড়ক ও মহাসড়কে নিরাপদ যাতায়াত নিশ্চিত করতে যা যা করণীয় সব পদপে গ্রহণ করা হবে। এতে কোন সংগঠন বা কোন গোষ্ঠীর লোক বলে কেউ নিস্তার পাবেন না। সড়ককে অনিরাপদ করে যারাই অবৈধ দখলবাজি করবেন তাদের বিরুদ্ধে প্রশাসন জেল জরিমানা উভয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। কোন তদবীর বা সুপারিশ গ্রহণ করা হবে না।

এ সময় তারা সড়ককে নিরাপদ করতে পরিবহন মালিক, শ্রমিকসহ যাত্রী সাধারণের সহযোগিতা কামনা করেন। যেকোন মূল্যে সড়কে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে হবে। পথচারীরা যাতে নির্বিঘ্নে ফুটপাত ব্যবহার করতে পারে সেটি নিশ্চিত করতে হবে।

জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছে নিরাপদ সড়ক চাই ভৈরব শাখা। নিরাপদ সড়ক চাই বিভিন্ন কর্মসূচীর কারণে সড়কে শৃঙ্খলা ফিরবে ও দুর্ঘটনা তুলনামূলকভাবে কমে আসবে। প্রতিনিয়িত দুর্ঘটনার পিছনে সড়কে শৃঙ্খলা না থাকাটা একটা জরুরী গুরুত্বপূর্ণ কারণ।

এক পরিসংখ্যানে দেখা গেছে সড়ক দুর্ঘটনার ফলে বছরে গড়ে আমাদের দেশের জিডিপির শতকরা দেড় ভাগ নষ্ট হয়। যার পরিমাণ ৫ হাজার কোটি টাকা।

আলোচনা শেষে অতিথিরা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় সড়ক নিরাপদ বিষয়ক লিফলেট বিতরণ করেন এবং পরে দুর্জয় মোড় থেকে সড়কের দু’পাশে সড়ক ও জনপথের চালানো অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ কার্যক্রম তদারকি করেন।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর