কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কিশোরগঞ্জ জেলার শ্রেষ্ঠ সহকারী শিক্ষিকা ভৈরবের ফারহানা বেগম


 স্টাফ রিপোর্টার | ৯ ডিসেম্বর ২০১৯, সোমবার, ৬:০৬ | শিক্ষা  


ভৈরব পৌর শহরের কমলপুর মোজাফফর বেপারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা ফারহানা বেগম কিশোরগঞ্জ জেলায় এ বছর (২০১৯ সালে) শ্রেষ্ঠ সহকারী শিক্ষিকা হওয়ার গৌরব অর্জন করেছেন।

সোমবার (৯ ডিসেম্বর) জেলা প্রশাসক মো. সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সুব্রত কুমার বণিক ও জেলা যাচাই-বাছাই কমিটির সদস্যগণ ফারহানা বেগমকে জেলার শ্রেষ্ঠ সহকারী শিক্ষিকা হিসেবে ঘোষণা করেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, পাঠদানে দক্ষতা, বিদ্যালয়ের সমাপনী পরীক্ষায় শতভাগ সফলতা অর্জন, সহপাঠ কার্যক্রমে শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণসহ শিক্ষা ক্ষেত্রে অনন্য অবদানের জন্য ফারহানা বেগমকে কিশোরগঞ্জ জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ সহকারী শিক্ষিকা নির্বাচন করা হয়েছে।

ফারহানা বেগম ২০০০ সালের পহেলা জুন শিক্ষকতা পেশায় যোগদান করেন। তিনি এর আগে উপজেলার সাদেকপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মানিকদী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও গোছামারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সুনামের সাথে শিক্ষকতা করেছেন।

উল্লেখ্য, ফারহানা বেগম এ বছর ভৈরব উপজেলার মধ্যে শ্রেষ্ঠ শিক্ষিকা হওয়ার গৌরব অর্জন করে জেলা পর্যায়ের বাছাইয়ে অবতীর্ণ হন। এর আগে ২০১৪ সালেও তিনি ভৈরব উপজেলার মধ্যে শ্রেষ্ঠ শিক্ষিকা হওয়ার গৌরব অর্জন করেন।

এছাড়া তিনি শিক্ষা ও চাকুরী ক্ষেত্রে সাফল্যের জন্য ২০১৬ সালে জয়িতা নির্বাচিত হন।

কবিতা আবৃত্তি, রবীন্দ্র সংগীত, নজরুল গীতি প্রতিযোগিতায় জাতীয় ও স্থানীয় পর্যায়ে শীর্ষস্থান অধিকার করার সুনামও রয়েছে ফারহানা বেগমের।

ফারহানা বেগম কিশোরগঞ্জ জেলার শ্রেষ্ঠ সহকারী শিক্ষিকা নির্বাচিত হওয়ায় জেলা প্রশাসক মো. সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সুব্রত কুমার বণিক, ভৈরব উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মো. সায়দুল্লাহ মিয়া, উপজেলা নির্বাহী অফিসার লুবনা ফারজানা, শিক্ষা কর্মকর্তা শামীম আহমেদ ও সহকারী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাবৃন্দের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর