কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কিশোরগঞ্জে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের উঠান বৈঠকে ইউএনও


 স্টাফ রিপোর্টার | ১৮ ডিসেম্বর ২০১৯, বুধবার, ৮:২৬ | শিক্ষা  


মানসম্মত প্রাথমিক শিক্ষা নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে শতভাগ ভর্তি, ঝরে পড়া রোধ ও নিয়মিত উপস্থিতি নিশ্চিতকরণ উপলক্ষে বুধবার (১৮ ডিসেম্বর) কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার কড়িয়াইল ক্লাস্টারের দানাপাটুলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পার্শ্ববর্তী মন্নান মিয়ার বাড়িতে শিক্ষার্থীদের মাদের নিয়ে এক উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।

কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার শিক্ষা কর্মকর্তা মো. এনামুল হক খান এর সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আব্দুল কাদির মিয়া।

দানাপাটুলী ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান হাজী সাখাওয়াত হোসেন ও ইউপি সদস্য মো. মুজিবুর রহমান বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে সকল অতিথিদের ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়।

অনুষ্ঠানে শিক্ষাবান্ধব উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আব্দুল কাদির মিয়া উপস্থিত মায়েদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা আপনাদের শিশুর প্রতি যতœবান হবেন, তাদের পাশে থাকবেন এবং নিয়মিত তাদের খোঁজ-খবর রাখবেন।

তিনি বলেন, আজ আমরা আছি, কাল থাকবো না। তবে যেখানেই থাকি যদি শুনি আপনাদের সন্তান অনেক বড় হয়েছে, মানুষের মতো মানুষ হয়েছে, তবেই আমাদের স্বার্থকতা।

তিনি আরো বলেন, আপনারা সন্তানদের সামনে কোন সময় ঝগড়া বিবাদ করবেন না। কারণ এতে তাদের মনে হতাশা তৈরি করে।

তিনি শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে বলেন, আজকের শিশু আগামী দিনের ভবিষ্যত। শিশুরা হচ্ছে সম্পদ। তাই সম্পদকে সম্পদ বানাতে হবে। শিশুর মনের মধ্যে স্বপ্ন তৈরি করতে হবে, তাদের স্বপ্ন দেখাতে হবে, তবেই সে একদিন বড় হবে। আপনারা প্রতিটি শিশুদের স্বপ্ন দেখাবেন। শিশুদের উৎসাহ দেবেন, তবেই তারা অনুপ্রাণিত হবে।

উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. এনামুল হক খান উপস্থিত মায়েদের বলেন, আপনারা শিশুদের নিয়মিত দুপুরের খাবার দিবেন। কারণ এতে শিশু সুস্থ্য থাববে এবং পড়ালেখায় মনোযোগী হবে।

তিনি বলেন, আপনার এই শিশু আগামী দিনে দেশের প্রধানমন্ত্রীও হতে পারে। তাই তাদের প্রতি অধিক যত্নবান হওয়ার জন্য মায়েদের প্রতি তিনি আহবান জানান।

পরে সদর উপজেলার কড়িয়াইল ক্লাস্টারে দায়িত্বপ্রাপ্ত সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ আবুল বাশার মৃধা এর উদ্যোগে এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার ব্যক্তিগত আর্থিক সহায়তায় কড়িয়াইল ও দানাপাটুলী এ দু’টি ইউনিয়নের ২৭টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের হতদরিদ্র ও অসহায় শিশু শিক্ষার্থীদের ৫০টি স্কুল ড্রেস, ৫০টি টিফিন বক্স, ৫০ জন শিক্ষার্থীদের খাতা-কলম ও পেন্সিল এবং উত্তম ফলাফল অর্জনের জন্য ৫০ জনকে জ্যামিতি বক্স উপহার দেয়া হয়।

এছাড়া পশ্চিম মাথিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ক্রিকেট খেলার সামগ্রী এবং কড়িয়াইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সততা স্টোর উপহার দেয়া হয়।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর