কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


বীরাঙ্গনা সখিনা সিলভার পেন অ্যাওয়ার্ড পেলেন চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন


 স্টাফ রিপোর্টার | ২৬ জানুয়ারি ২০২০, রবিবার, ২:৪৮ | বিশেষ সংবাদ 


সমাজসেবায় অবদান রাখার জন্য বীরাঙ্গনা সখিনা সিলভার পেন অ্যাওয়ার্ড-২০১৮ পেয়েছেন সমাজের আলোকিত মানুষ, কিশোরগঞ্জের কৃতী সন্তান নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) এর  চেয়ারম্যান চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন। বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) রাতে রাজধানীর কাকরাইলে নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) এর প্রধান কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে তাঁর হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট ও সনদ তুলে দেন আয়োজক কমিটির নেতৃবৃন্দ।

এ সময় দি ইলোক্টোরাল কমিটি ফর বীরাঙ্গনা সখিনা সিলভার পেন অ্যাওয়ার্ডের প্রতিষ্ঠাতা ও সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ রায়হান উদ্দিন সরকার, সংগঠনের সহ-সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ, পেন অ্যাওয়ার্ড অ্যাফেয়ার্সের সম্পাদক ছড়াকার আজম জহিরুল ইসলাম, ক্রিয়েটিভ এসোসিয়েশনের সভাপতি সাংবাদিক শাহ আলম ভূইয়া, মিডিয়া সমন্বয়কারী সাংবাদিক অমিয় দত্ত ভৌমিক, গৌরীপুর রিপোর্টার্স ক্লাবের সাধারণ জহিরুল হুদা লিটন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বীরাঙ্গনা সখিনা সিলভার পেন অ্যাওয়ার্ডের প্রতিষ্ঠাতা ও সাধারণ সম্পাদক রায়হান উদ্দিন সরকার জানান, বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রশংসনীয় ও গৌরবোজ্জ্বল অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ ইলেক্টোরাল ভোটিং সিস্টেমের মাধ্যমে দেশের ১৩ গুণীজনকে বীরাঙ্গনা সখিনা অ্যাওয়ার্ড দেয়া হয়।

গত ৪ জানুয়ারি ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের শহীদ সাহাবুদ্দিন মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত অ্যাওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রশংসনীয় অবদান রাখার জন্য ১৩ জন গুণী ব্যক্তিকে সম্মাননা প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থেকে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ইকরামুল হক টিটু আনুষ্ঠানিকভাবে গুণীজনদের হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট ও সনদ তুলে দেন।

কিন্তু অনিবার্য কারণবশত চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন ওই অনুষ্ঠানে এসে অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ করতে পারেননি। তাই বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) রাতে রাজধানীর কাকরাইলে নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) এর প্রধান কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে তাঁর হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট ও সনদ তুলে দেয়া হয়।

এবার ইলিয়াস কাঞ্চন ছাড়াও সমাজসেবায় অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন ড. মোঃ সিরাজুল ইসলাম। অ্যাওয়ার্ড বিজয়ী অন্যান্য গুণীজনরা হলেন- সাংবাদিকতা ও আলোকচিত্রে- মহিউদ্দিন আহমেদ, অমিত রায়, মোঃ শেখ ফখরুল হক, জগদীশ চন্দ্র সরকার ও কমল সরকার।

গবেষণা, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ক্ষেত্রে- প্রফেসর পরশে চন্দ্র মোদক,  গবেষক অধ্যাপক স্বপন ধর। শিল্পকলা, শিক্ষা, ভাষা ও সাহিত্যে- কবি সোহরাব পাশা, বিবেক সম্রাট গৌরাঙ্গ আদিত্য, আবু রায়হান ও নাট্যকার রাখাল বিশ্বাস।

প্রসঙ্গত, ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার ‘দি ইলেক্টোরাল কমিটি ফর বীরাঙ্গনা সখিনা সিলভারপেন অ্যাওয়ার্ড কমিটি’র উদ্যোগে ২০১২ সাল থেকে দেশের বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রশংসনীয় ও গৌরবোজ্জ্বল অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ এই অ্যাওয়ার্ড চালু হয়। গৌরীপুরের মাওহা ইউনিয়নের কেল্লা তাজপুরের মুঘল দেওয়ান কন্যা সখিনা বিবির নামানুসারে এই অ্যাওয়ার্ডের নামকরণ করা হয়েছে।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর