কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


নিরাপদ সড়ক এর দাবিতে ছাত্রলীগ নেতার কিছু কথা


 ওয়াজেদ হক | ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, সোমবার, ১:১৬ | মত-দ্বিমত 


বাংলাদেশে ২০১৯ সালে সড়ক দুর্ঘটনার সংখ্যা ও দুর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা আগের বছরের চেয়ে বেড়েছে বলে উঠে এসেছে সড়ক নিরাপত্তা পরিস্থিতি নিয়ে করা নিরাপদ সড়ক চাই এর বার্ষিক প্রতিবেদনে।

২০১৯ এ সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন ৫২২৭ জন। প্রতিবেদনে উঠে এসেছে, ২০১৮ সালের তুলনায় ২০১৯'এ সড়ক দুর্ঘটনায় ৭৮৮ জন বেশি নিহত হয়েছেন।

নিরাপদ সড়ক চাই এর চেয়ারম্যান ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, এসব দুর্ঘটনার বেশিরভাগই হচ্ছে মহাসড়কে আর দুর্ঘটনার হার বৃদ্ধি পাওয়ার অন্যতম প্রধান কারণ কর্তৃপক্ষের যথাযথ নজরদারির অভাব।

তিনি বলেছেন, "অনেক নির্দেশনা, আইনই মানা হয় না এবং সেগুলো নজরদারির আওতায়ও থাকে না। মূল শহরের রাস্তায় বা মহাসড়কে কম গতির যানবাহনগুলো না চলার বিষয়ে যে নির্দেশনা ছিল, তা অনেকাংশেই মানা হয় না।"

এবার আসা যাক, আমাদের নিজ এলাকার কথায়। ভৈরব-ময়মনসিংহ সড়কে প্রতিনিয়ত ঝরছে তাজা প্রাণ। এরমধ্যে পুলেরঘাট থেকে কটিয়াদী সড়কটুকু যেন পরিণত হয়েছে এক মৃত্যু উপত্যকায়।

কিন্তু এরপরও সড়কটিতে মৃত্যুর মিছিল বন্ধের কোন উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে না। নিরাপদ সড়কের জন্য কাজ করতেন আমার চাচি শামীমা সুলতামা ঝর্ণা। নিরাপদ সড়কের জন্য কাজ করা মানুষটিকেও সম্প্রতি প্রাণ হারাতে হয়েছে মর্মান্তিক এক সড়ক দুর্ঘটনায়।

এভাবে আর কত? আজ আমার চাচি। কাল হয়তো আপনি না হয় আমি। এ অবস্থার নিরসন প্রয়োজন।

আমাদের কিশোরগঞ্জ-২ (কটিয়াদী-পাকুন্দিয়া) আসনের গণমানুষের নেতা জননেতা নুর মোহাম্মদ এমপি মহোদয় এর কাছে আকুল আবেদন, ভৈরব-ময়মনসিংহ সড়কটি যেন ফোর লেনে উন্নীত করা হয়। এতে হয়তো সড়ক দুর্ঘটনা হ্রাস পাবে।

আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার কাছে আকুল আবেদন, ভৈরব-ময়মনসিংহ সড়কে মৃত্যুর মিছিল থামাতে আপনি প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিন। যেন এই সড়কে আর কোন প্রাণ অকালে ঝরে না যায়।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর