কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


পাকুন্দিয়ায় শিক্ষকের এক মাসের জেল


 সাখাওয়াত হোসেন হৃদয় | ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৫:৩০ | বিশেষ সংবাদ 


কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় দাখিল পরীক্ষা চলাকালীন অনুমোদন ব্যতিত কেন্দ্রে প্রবেশ, মুঠোফোন ব্যবহার ও একটি কক্ষের অনিয়মিত পরীক্ষার্থীদের সহযোগিতার অভিযোগে মো. সিদ্দিক হোসেন নামে এক মাদ্রাসা শিক্ষককে এক মাসের জেল দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) দাখিল পরীক্ষা চলাকালে মঙ্গলবাড়িয়া কামিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে অনুমোদন ব্যতিত প্রবেশ, মুঠোফোন ব্যবহার ও একটি কক্ষের অনিয়মিত পরীক্ষার্থীদের সহযোগিতার অভিযোগে এই শিক্ষককে এ দণ্ডাদেশ দেওয়া হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) একেএম লুৎফর রহমান এ দণ্ড দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত সিদ্দিক হোসেন উপজেলার এগারসিন্দুর ঈশাখাঁন আলিম মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) মঙ্গলবাড়িয়া কামিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে ইংরেজি প্রথম পত্র পরীক্ষা চলছিল। কেন্দ্র পরিদর্শনে যান উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) একেএম লুৎফর রহমান।

এ সময় ওই কেন্দ্রে সিদ্দিক হোসেন নামে ওই শিক্ষককে বিনা অনুমতিতে কেন্দ্রে প্রবেশ, মুঠোফোন ব্যবহার ও মাদ্রাসার ২৩ নং কক্ষের অনিয়মিত পরীক্ষার্থীদের সহযোগিতা করতে দেখতে পান এসিল্যান্ড।

পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ওই শিক্ষককে তিনি এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) একেএম লুৎফর রহমান বলেন, পাবলিক পরীক্ষাসমূহের (অপরাধ) ১৯৮০ এর ১০ ধারা মোতাবেক ওই শিক্ষককে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর